দক্ষিণ-পশ্চিমাঞ্চলে পাটের বাম্পার ফলনের সম্ভাবনা

প্রকাশিত: ৮:৩৮ অপরাহ্ণ , জুলাই ২৫, ২০২১

এবার পাটের বাম্পার ফলনের সম্ভাবনা রয়েছে দেশের দক্ষিণ-পশ্চিমাঞ্চলের ৬ জেলায়। এসব অঞ্চলে ১ লাখ ৬৫ হাজার ৪শ’৭০ হেক্টর জমিতে পাটের আবাদ হয়েছে। যা লক্ষ্যমাত্রার চেয়ে ২ হাজার ৮শ’ ২৫ হেক্টর বেশি।

গত বছর পাটের দাম ভালো পাওয়ায় এবছর বেশি জমিতে কৃষকরা পাটের আবাদ করেছেন বলে কৃষি সম্প্রসারণ অধিদপ্তর সূত্রে জানা গেছে। বর্তমানে পাট কেটে পানিতে জাগ দেয়ার ব্যস্ত সময় পার করছেন কৃষকরা। আবহাওয়া অনুকূলে থাকলে এ বছর পাটের বাম্পার ফলনের সম্ভাবনা রয়েছে বলে কৃষক ও কৃষি কর্মকর্তারা জানিয়েছেন।

যশোর আঞ্চলিক কৃষি সম্প্রসারণ অধিদপ্তরের অধীন দক্ষিণ-পশ্চিমাঞ্চলের ৬ জেলা হচ্ছে-যশোর, ঝিনাইদহ, মাগুরা, কুষ্টিয়া, চুয়াডাঙ্গা ও মেহেরপুর।

যশোর আঞ্চলিক কৃষি সম্প্রসারণ অধিদপ্তর অফিস সূত্রে জানা গেছে, চলতি মৌসুমে দক্ষিণ-পশ্চিমাঞ্চলের ৬ জেলায় মোট ১ লাখ ৬২ হাজার ৬শ’৪৫ হেক্টর জমিতে পাট চাষের লক্ষ্যমাত্রা ধরা হয়। লক্ষ্যমাত্রা ছাড়িয়ে পাটের আবাদ হয়েছে ১ লাখ ৬৫ হাজার ৪শ’৭০ হেক্টর জমিতে।

এর মধ্যে যশোর জেলায় পাটের আবাদ হয়েছে ২৬ হাজার ১শ’২৫ হেক্টর জমিতে, ঝিনাইদহ জেলায় পাটের আবাদ হয়েছে ২২ হাজার ৮শ’৬০ হেক্টর জমিতে, মাগুরা জেলায় পাটের আবাদ হয়েছে ৩৫ হাজার ২শ’৭০ হেক্টর জমিতে, কুষ্টিয়া জেলায় পাটের আবাদ হয়েছে ৪০ হাজার ৯শ’৬০ হেক্টর জমিতে, চুয়াডাঙ্গা জেলায় পাটের আবাদ হয়েছে ২০ হাজার ২শ’১৫ হেক্টর জমিতে এবং মেহেরপুর জেলায় পাটের আবাদ হয়েছে ২০হাজার ৪০ হেক্টর জমিতে।

সরেজমিনে গিয়ে দেখা গেছে, যশোর সদর উপজেলার, বাঘারপাড়া উপজেলার, ঝিকরগাছা উপজেলার, চৌগাছা উপজেলার এবং মাগুরা সদর উপজেলার বিভিন্ন এলাকায় পাট কেটে পানিতে জাগ দেয়ার কাজে ব্যস্ত সময় পার করছেন কৃষাণ-কৃষাণীরা।

কৃষি সম্প্রসারণ অধিদপ্তর যশোরের উপ-পরিচালক বাদল চন্দ্র বিশ্বাস জানান, কৃষি অফিসের পক্ষ থেকে পাট চাষিদের উদ্বুদ্ধকরণ, পরামর্শ, উঠান বৈঠক ও প্রশিক্ষণ দেয়া হয়েছে। গত কয়েক বছর যাবত পাটের দাম ভালো থাকায় এ অঞ্চলের জেলাগুলোতে পাটের আবাদ দিন দিন বাড়ছে বলে তিনি জানান।- বাসস