বঙ্গবন্ধু বাংলাদেশ গেমসের মশাল বহন করবেন ১৮ কৃতি ক্রীড়াবিদ

প্রকাশিত: ১:২৫ অপরাহ্ণ , মার্চ ১৫, ২০২১

জাতির পিতা বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিবুর রহমানের জন্মশত বার্ষিকী উপলক্ষে বাংলাদেশ অলিম্পিক এসোসিয়েশন (বিওএ) আয়োজিত ‘বঙ্গবন্ধু ৯ম বাংলাদেশ গেমস ২০২০’র মিডিয়া ও পাবলিসিটি কমিটির এক সভা রোববার বিকেলে সংস্থার কার্যালয়ে অনুষ্ঠিত হয়।

তথ্য সচিব খাজা মিয়ার সভাপতিত্বে সভায় আসন্ন গেমসের মশাল বহনকারীদের তালিকা ও রুট চূড়ান্ত করা হয়। সিদ্ধান্ত অনুযায়ী দেশের সাবেক ১৮ জন কৃতি ক্রীড়াবিদ বিভিন্ন গ্রুপে বিভক্ত হয়ে বঙ্গবন্ধুর জন্মস্থান গোপালগঞ্জের টুঙ্গীপাড়া থেকে শুরু করে বঙ্গবন্ধু জাতীয় স্টেডিয়ামে পৌঁছাবে।

আগামী ৩০ মার্চ সকালে টুঙ্গীপাড়াস্থ বঙ্গবন্ধুর মাজারে বিওএ সভাপতি ও গেমসের নির্বাহি চেয়ারম্যান সেনা প্রধান জেনারেল আজিজ আহমেদ এসবিপি (বার) বিএসপি, বিজিবিএম, পিবিজিএম, বিজিবিএমএস, পিএসসি,জি মশাল প্রজ্জলন করে মহাসচিব সৈয়দ শাহেদ রেজার হাতে তুলে দেবেন। এরপর মহাসচিব মশালটি তুলে দেবেন সাবেক চার কৃতি এ্যাথলেট ইলিয়াস হোসেন (ফুটবল), মিলজার হোসেন (এ্যাথলেটিকস), জেসমিন খান পপি (ভলিবল) ও আতিকুর রহমানের (শূটিং) হাতে।

এ চারজন টুঙ্গীপাড়া থেকে মশালটি বহন করে ঘুনাপাড়া পর্যন্ত এসে তুলে দেবেন খায়রুজ্জামান (হ্যান্ডবল) ও শাহজাহান আলী রনির (সুইমিং) হাতে। এ দুজন মশালটি বহন করে পুলিশ লাইন মোড় পর্যন্ত এসে তুলে দেবেন মেজবাহ উদ্দিন (উশু) ও মিজানুর রহমানের (তায়কোয়ানডো) হাতে। এ জুটি ভাটিপাড়া মোড় পর্যন্ত বহন করে মশালটি তুলে দেবেন ইমদাদুল হক মিলন (আরচারি) ও ইতি খাতুন (উশু) জুটির হাতে। তারা যাবেন মোকসেদপুর পর্যন্ত। এখানে ডালিয়া আক্তার (হ্যান্ডবল) ও মিথুন সরকার (বাস্কেটবল) মশাল গ্রহণ করে ভাঙ্গা পৌঁছে দেবেন শাহনাজ পারভিন মালেকা (কাবাডি) ও জ উ প্রু’র হাতে।

এ জুটির কাছ থেকে কাঠালবাড়ীর ঘাটে মশাল গ্রহণ করবেন ফরহাদ জেসমিন লিটি (এ্যাথলেটিকস) ও মাহবুব বিল্লা (টেবিল টেনিস)। তাদের কাছ থেকে মাওয়া ঘাটে মশাল গ্রহণ করবেন শেখ মো: আসলাম (ফুটবল) ও গাজী আশরাফ হোসেন লিপু (ক্রিকেট)। আসলাম-লিপুর কাছ থেকে বঙ্গবন্ধু স্টেডিয়ামে মশাল গ্রহণ করবেন মো: সিদ্দিকুর রহমান (গলফ) ও মাহফুজা খাতুন শিলা (সুইমিং)।

সভায় অন্যান্যের মধ্যে আরও উপস্থিত ছিলেন কমিটির সদস্য বাংলাদেশ সংবাদ সংস্থার (বাসস) ব্যবস্থাপনা পরিচালক আবুল কালাম আজাদ, শেখ বশির আহমেদ মামুন, কাজী রাজিব উদ্দিন চপল, মো: জাহিদুল ইসলাম, মো: আজিজুর রহমান, ইকরামউজ্জামান প্রমুখ।

সভাপতির বক্তব্যে খাজা মিয়া আসন্ন গেমসটির প্রচার প্রচারণার ওপর গুরুত্ব দিয়ে দেশের সকল গণমাধ্যমের প্রতি আহ্বান জানান। এ ব্যাপারে সরকারের পক্ষ থেকে সার্বিক সহযোগিতার প্রতিশ্রুতিও দেন তিনি।