পার্বতীপুরে বিয়ের দাবীতে প্রেমিকের বাড়ীতে প্রেমিকার অনশন

মনজুরুল হক মঞ্জু মনজুরুল হক মঞ্জু

পার্বতীপুর (দিনাজপুর) প্রতিনিধি

প্রকাশিত: ২:২৯ অপরাহ্ণ , ফেব্রুয়ারি ২, ২০২১

দিনাজপুরের পার্বতীপুরে প্রেমিকা তার বিয়ের দাবিতে প্রেমিকের বাড়ির সামনে তিনদিন ধরে অবস্থান অনশন করছেন। উপজেলার রামপুর ইউনিয়নের পূর্ব হুগলিপাড়া গ্রামে প্রেমিক মাহমুদুল হাসানের বাড়ীতে গত তিনদিন ধরে চলছে প্রেমিকার অনশন। খবর পেয়ে এলাকার কৌতুহলী লোকজন ওই বাড়িতে ভিড় জমাচ্ছে। ছেলের পরিবারের লোকজন বাড়ির গেটের তালা দেওয়ায় প্রেমিকা প্রচন্ড শীতে বাড়ীর গেটের সামনে অনশন চালিয়ে যাচ্ছেন। এদিকে, প্রেমিক মাহমুদুল হাসান বিজ্ঞান গ্রাম ছেড়ে পালিয়েছেন। উপজেলার রামপুর ইউনিয়নের পূর্ব হুগলিপাড়া গ্রামের ইদ্রিস আলীর ছেলে মাহমুদুল হাসান বিজ্ঞানের (২০) সাথে একই ইউনিয়নের উপজেলার দরিখামার গ্রামের মজিবর রহমানের মেয়ে মেহের বানু লিজার (২৬) সাথে গত তিন বছর ধর তাদের প্রেমের সম্পর্ক রয়েছে বলে দাবী করেন প্রেমিকা লিজা। মেহের বানু লিজার আগের স্বামীর ঘরের ৮ বছর এবং ৫ বছরের দুইটি কন্যা সন্তান রয়েছে। গত এক বছর পূর্বে তারা তাদের ডির্ভোস হয়েছে।
এদিকে, গত ২৮ জানুয়ারী দু’জনের বিয়ের কথা বলে মন্মথপুর ভবেরবাজার চাকলাহাটে যান তারা। ঘোরা ফেরার সময় গতিবিধি সন্দেহ হলে পার্বতীপুর মডেল থানা পুলিশের হাতে তাদের সোপর্দ করেন স্থানীয়রা। পরে ২৯ জানুয়ারী এদের আদালতে মাধ্যমে দিনাজপুর জেল হাজতে পাঠায় পুলিশ। পরদিন ৩০ জানুয়ারী বিয়ের কথা কিন্তু জামিনে এসে প্রেমিক মাহমুদুল হাসান আত্মগোপন করে। এ সময় প্রেমিককে খুঁজে না পেয়ে বিয়ের দাবি তুলে হাসানের বাড়ি দরিখামারে অবস্থান নেন মেহের বানু লিজা। অবস্থান অনশন নিলে বাড়ির লোকজন লিজাকে বের করে বাড়ির গেটো তালা দেয়। লিজা বিয়ের দাবিতে বাড়ির গেটের সামনে অনশন শুরু করেন। এ সময় হাসানের পরিবারের কাউকে পাওয়া যায়নি।
রামপুর ইউনিয়নের পূর্ব হুগলিপাড়া গ্রামে বাসিন্দা বাইজিদ হোসেন জানান, বিষয়টি আমরা জেনেছি, গত তিন দিন ধরে। হাসানের বিভিন্ন বাড়িতে গৃহশিক্ষক হিসাবে শিক্ষার্থীদের পড়াত বলে জানান। পার্বতীপুর মডেল থানার অফিসার ইনচার্জ (ওসি) মোখলেছুর রহমান বিষয়টি নিশ্চিত করেছেন।