আওয়ামী লীগ নয়, বিএনপির প্রতিপক্ষ পুলিশ-প্রশাসন’

প্রকাশিত: ৫:২৫ অপরাহ্ণ , জানুয়ারি ২৮, ২০২১

বর্তমান নির্বাচন কমিশন ক্ষমতাসীন আরেকটি দলের অঙ্গসংগঠন। প্রতিটি নির্বাচনে প্রশাসনকে সরকার পুরোপুরি ব্যবহার করছে বলে অভিযোগ করেছেন বিএনপির মহাসচিব মির্জা ফখরুল ইসলাম আলমগীর।

বৃহস্পতিবার (২৮ জানুয়ারি) দুপুরে গুলশানে বিএনপি চেয়ারপারসনের কার্যালয়ে জাতীয় পার্টির ভাইস চেয়ারম্যান সাবেক হুইপ সৈয়দপুরের নেতা শওকত চৌধুরীর যোগদান উপলক্ষে আয়োজিত অনুষ্ঠানে তিনি এ কথা বলেন।

এ সময় মির্জা ফখরুল বলেন, বিএনপির প্রতিপক্ষ এখন আর আওয়ামী লীগ নয়, প্রতিপক্ষ হয়ে দাঁড়িয়েছে পুলিশ-প্রশাসন। নির্বাচন কমিশন নিরপেক্ষ কোনো সংগঠন নয়। প্রতিষ্ঠানটি এখন সরকার ও আওয়ামী লীগের একটা লেজুড়ভিত্তিক সংগঠনে দাঁড়িয়ে গেছে। মূলত তারা তাদের একটা অঙ্গসংগঠনে পরিণত হয়েছে।

বিএনপির মহাসচিব বলেন, আমরা বারবার বলেছি, এই অবস্থার পরিবর্তন করতে হবে। আমরা দাবি করেছি যে নির্বাচন কমিশনের এই মুহূর্তে পদত্যাগ করা দরকার, এই সরকারের এই মুহূর্তে পদত্যাগ করা দরকার এ জন্য যে তারা সংবিধানকে লঙ্ঘন করে জনগণের অধিকারকে কেড়ে নিয়েছে এবং বিনা ভোটের একটা বেআইনি সরকার তারা হয়ে আছে।

তিনি আরো বলেন, চট্টগ্রাম সিটি করপোরেশন নির্বাচনে যা হয়েছে, তা আপনারা পত্রপত্রিকায় দেখেছেন। একেবারে রক্তাক্ত, মানুষ মারা গেছে দুজন। বিএনপির এজেন্টদের কেন্দ্রে থাকতে দেওয়া হয়নি, তাদের শারীরিকভাবে নির্যাতন করে বের করে দেওয়া হয়েছে।

নতুন যোগদানকারী নেতা শওকত চৌধুরীকে বরণ করে নিয়ে বিএনপি মহাসচিব বলেন, শওকত চৌধুরী সাহেবকে অভিনন্দন জানাচ্ছি। আমি আশা করি, যে গণতান্ত্রিক আন্দোলন চলছে, সৈয়দপুরের জনগণকে সঙ্গে নিয়ে তিনি নেতৃত্ব দেবেন।

বিএনপির সাংগঠনিক সম্পাদক আসাদুল হাবিবের সভাপতিত্বে এ আলোচনায় দলের সাংগঠনিক সম্পাদক রুহুল কুদ্দুস তালুকদার, সহসাংগঠনিক সম্পাদক আবদুল খালেক, সৈয়দপুর বিএনপির আহ্বায়ক আবদুল গফুর সরকার প্রমুখ বক্তব্য দেন।