প্রেমিকার বিরুদ্ধে মামলা করতে এসে প্রেমিক আটক!

প্রকাশিত: ৮:১১ অপরাহ্ণ , জানুয়ারি ২৩, ২০২১

নাটোরের গুরুদাসপুরে এক কিশোরীর (১৫) গর্ভের সন্তানের দায় নিতে চাচ্ছেন না জিল্লুর রহমান (২২) নামের এক প্রেমিক। দায় থেকে রেহাই পেতে উল্টো প্রেমিকার পরিবারের বিরুদ্ধে মিথ্যা অভিযোগ দিতে এলে শনিবার (২৩ জানুয়ারি) জিল্লুরকে আটক করেন গুরুদাসপুর থানা পুলিশ। 

জানা যায়, উপজেলার নাজিরপুর ইউনিয়নের মামুদপুর গ্রামের ওই কিশোরীর সঙ্গে প্রতিবেশী আক্কাস আলীর ছেলে জিল্লুর রহমানের গত এক বছর ধরে প্রেমের সম্পর্ক চলে আসছে। এক পর্যায়ে বিয়ের প্রলোভন দিয়ে তার সাথে অনৈতিক মেলামেশা শুরু করেন জিল্লুর। অনৈতিক মেলামেশায় সম্প্রতি ওই কিশোরী গর্ভবতী হয়ে পড়েন।

এ ঘটনা এলাকায় জানাজানি হলে স্থানীয়ভাবে বিয়ে করবে মর্মে আপোষ মিমাংসা করা হয়। জিল্লুরের বাবা আক্কাস আলী এতে রাজী না হয়ে কিশোরীর পরিবারকে হুমকি দেন। স্বামীর স্বীকৃতি পেতে ওই সন্তান সম্ভবা অসহায় কিশোরী দ্বারে দ্বারে ঘুরছেন।

এদিকে ওই অভিযোগ থেকে বাঁচতে জিল্লুর ওই কিশোরীর পরিবারের বিরুদ্ধে থানায় মিথ্যা মামলা করতে এলে থানা পুলিশ জিল্লুরকে আটক করে।

অসহায় ওই কিশোরী বলেন, তার গর্ভে ছয় মাসের সন্তান। গর্ভের সন্তানে ও স্ত্রীর স্বীকৃতির জন্য জিল্লুরকে আইনের আওতায় আনার দাবি করছি।

গুরুদাসপুর থানার অফিসার ইনচার্জ আব্দুর রাজ্জাক বলেন, শরিফার পরিবারের বিরুদ্ধে জিল্লুর অভিযোগ দিতে এলে তাকে আটক করা হয়। মেয়েটিকে ডেকে পাঠানো হয়েছে। সে আসলে প্রয়োজনীয় আইনানুগ ব্যবস্থা গ্রহণ করা হবে।