কলেজ ছাত্রকে হত্যা করে মাটিচাপা

প্রকাশিত: ২:৪৬ অপরাহ্ণ , সেপ্টেম্বর ২৫, ২০২০

সামান্য টাকা জন্য এক কলেজ ছাত্রকে হত্যা মাটিচাপা দিয়ে রাখে ঘাতকরা। নিহতের বাবা প্রবাসী। জানা যায়, ঝিনাইদহের শৈলকুপায় নিখোঁজের পাঁচ দিন পর সুজন হোসেন (১৮) নামের এক কলেজ ছাত্রের মাটিচাপা দেওয়া লাশ উদ্ধার করেছে পুলিশ। পুলিশের ধারণ তাকে হত্যা করে ধানক্ষেতে মাটিচাপা দেয়া হয়।

বৃহস্পতিবার রাতে শৈলকুপা উপজেলার আউশিয়া গ্রামের একটি ধানক্ষেতের সেচ পাম্পের ঘর থেকে লাশটি উদ্ধার করে পুলিশ।

নিহত সুজন আউশিয়া গ্রামে মালয়েশিয়া প্রবাসী জিল্লুর রহমানের ছেলে। তিনি শৈলকুপা ডিগ্রি কলেজের উচ্চ মাধ্যমিক দ্বিতীয় বর্ষে অধ্যয়নরত ছিলেন।

পুলিশ জিজ্ঞাসাবাদের জন্য ঘটনার পর পরই সাকিব ও নাজমুল নামের দুজনসহ তিনজনকে আটক করে। তাদের একজনের দেওয়া তথ্য মতে লাশটি উদ্ধার করা হয়।

শৈলকুপা থানার অফিসার ইনচার্জ (ওসি) জাহাঙ্গীর আলম জানান, গত ১৯ সেপ্টেম্বর সুজন বাড়ি থেকে সার কেনার জন্য শৈলকুপা বাজারে যান। তারপর থেকেই তিনি নিখোঁজ ছিলেন।

এ ঘটনায় পরদিন পরিবারের পক্ষ থেকে থানায় সাধারণ ডায়েরি (জিডি) করা হলে পুলিশ তিনজনকে আটক করে। আটকদের একজনের দেওয়া তথ্য মতে গত রাতে লাশটি উদ্ধার করা হয়। টাকা লেনদেন সংক্রান্ত বিরোধের জেরে সুজনকে হত্যা করা হয়েছে বলে প্রাথমিকভাবে ধারণা করছে পুলিশ।