হাওর বিষয়ক মন্ত্রণালয় গঠনের দাবি

সুস্থির সরকার সুস্থির সরকার

বিভাগীয় প্রধান ময়মনসিংহ

প্রকাশিত: ১২:২৫ অপরাহ্ণ , আগস্ট ১৮, ২০২০

হাওর বিষয়ক মন্ত্রণালয় গঠনের দাবি জানিয়েছেন নেত্রকোণাস্থ মোহনগঞ্জ সমিতির আহবায়ক মো: ইকবাল হোসেন। তিনি বিগত ১৫ আগস্ট ইং তারিখে তার ব্যক্তিগত ফেসবুকে পোস্ট দিয়ে এ দাবি উত্থাপন করেন। তার এ দাবিকে সমর্থন করে হাওর এলাকার দেশের ও দেশের বাহিরের মানুষ অবিরাম কমেন্টস করে যাচ্ছেন।

পোস্টদাতা মো: ইকবাল হোসেন সাবেক মোহনগঞ্জ উপজেলা কৃষকলীগ সভাপতি। তিনি আমাদের জানান, হাওর অধ্যুষিত ৭টি জেলা যথা নেত্রকোণা, কিশোরগঞ্জ, সুনামগঞ্জ, সিলেট, মৌলবীবাজার, হবিগঞ্জ ও ব্রাহ্মণবাড়িয়া। বাংলাদেশে মোট আয়তনের পঞ্চমাংশ এই হাওর এলাকা। এখানে বসবাস করে প্রায় আড়াই কোটি মানুষ। বাংলাদেশের ২৫% ধান ও মস্য এই হাওরে উপাদিত হয়। উপাদিত ধান ও মস্য এলাকার চাহিদা মিটিয়ে  দেশের বিভিন্ন অঞ্চল তথা দেশের বাহিরেও রপ্তানি হয়ে থাকে। হাওর এলাকায় প্রচুর খনিজ সম্পদ রয়েছে যেমন চুনাপাথর, সাদামাটি, বালু, পাথর, কয়লা, ইউরেনিয়াম , স্বর্ণের খনি ও প্রচুর গ্যাস রয়েছে। এসকল খনিজ সম্পদ সুষ্ঠু পরিকল্পনায় উত্তোলন করে হাওরের চাহিদা মিটিয়ে বিদেশে রপ্তানি করে প্রচুর বৈদেশিক মুদ্রা অর্জন করা সম্ভব। তাছাড়া হাওরের উপাদিত কাচামাল ব্যবহার করে এখানে বিভিন্ন ধরনের কারখানা গড়ে তোলা সম্বব। এখানে প্রচুর চা বাগান রয়েছে। ইতিমধ্যে আমাদের চা দেশের চাহিদা মিটিয়ে বিদেশে রপ্তানি হচ্ছে। এছাড়া হাওর এলাকায় সম্ভাবনাময় পর্যটন শিল্প গড়ে উঠতে পারে ।

তিনি আরও জানান এত সম্পদ থাকার পরও অব্যস্থাপনার কারনে অত্র এলাকার ২৮% লোক দারিদ্রসীমার নিচে বসবাস করে। তাই টেকসই ও দ্রুত উন্নয়নের লক্ষ্যে হাওর বিষয়ক মন্ত্রণালয় বিশেষ প্রয়োজন। মাননীয় প্রধানমন্ত্রী বিশ্ব মানবতার জননী, হাওর বান্ধব জননেত্রী শেখ হাসিনার কাছে তিনি হাওর বিষয়ক মন্ত্রণালয় গঠনের হাওর বাসীর পক্ষে জোর দাবি জানান।