বাড্ডায় বাবা-ছেলের মরদেহ উদ্ধার

প্রকাশিত: ১:৪৭ অপরাহ্ণ , ফেব্রুয়ারি ২৯, ২০২৪

রাজধানীর বাড্ডার বেরাইদ থেকে বাবা-ছেলের মরদেহ উদ্ধার করেছে পুলিশ।

বুধবার (২৮ ফেব্রুয়ারি) রাতে বাড্ডা থানা পুলিশ বেরাইদের জেনে পাড়ার মুবাক্কারের বাসার নিচতলা থেকে তাদের মরদেহ উদ্ধার করে। ঘটনাস্থলে উপস্থিত হয়ে গলায় ফাঁস দেওয়া অবস্থায় ছেলে ও শায়িত অবস্থায় বৃদ্ধ বাবার মরদেহ দেখতে পায় পুলিশ।

মৃতরা হলেন বাবা গিয়াস উদ্দিন ও ছেলে রাকিব। নিহত রাকিব হোসেন পেশায় ইলেকট্রিক মিস্ত্রি এবং আর বাবা গিয়াসউদ্দিন পেশায় স্কুল শিক্ষক ছিলেন।

পুলিশ জানায়, অবসরপ্রাপ্ত স্কুল শিক্ষক বাবার সঙ্গে ছেলে রাকিব বেরাইদ এলাকায় ভাড়া থাকতেন। রাকিব বিদ্যুতের কাজ করতেন। দুই বছর আগে মা মারা যাওয়ার পর থেকে ছেলে রাকিবের সঙ্গে গিয়াস উদ্দিনের নানা বিষয় নিয়ে মনমালিন্য ছিল। ধারণা করা হচ্ছে, পারিবারিক কলহের জেরে প্রথমে বাবা ও পরে ছেলে আত্মহত্যা করেন।

ময়নাতদন্তের জন্য মরদেহ সোহরাওয়ার্দী মেডিকেল কলেজ হাসপাতালে মর্গে প্রেরণ করা হয়েছে।

বাড্ডার জোনের সহকারী পুলিশ কমিশনার রাজন কুমার সাহা বলেন, রাতে মোবাইলে কোনো সাড়া না পেয়ে পাশের মুদি দোকানদার হারুন বাসায় এসে দরজা বন্ধ পেয়ে ডাকাডাকি করেন। তবে কোনো সাড়া না পেয়ে স্থানীয়দের সহায়তায় দরজা ভেঙে ভেতরে প্রবেশ করে ছেলে রাকিব হোসেনকে সিলিং ফ্যানের সঙ্গে ঝুলন্ত অবস্থায় দেখতে পান, বিছানায় বাবা গিয়াসউদ্দিনকে মৃত অবস্থায় দেখতে পান তারা।

বিষয়টি তদন্তাধীন, ময়নাতদন্তে রিপোর্ট মৃত্যুর কারণ স্পষ্ট হবে। পরবর্তী আইনগত ব্যবস্থা প্রক্রিয়াধীন রয়েছে বলে জানান তিনি।

Loading