সন্ত্রাসী হামলায় আহত ইউএনওকে ঢাকায় আনা হয়েছে

প্রকাশিত: ৫:২৬ অপরাহ্ণ , সেপ্টেম্বর ৩, ২০২০

দুর্বৃত্তদের ধারালো অস্ত্রের আঘাতে গুরুতর আহত দিনাজপুরের ঘোড়াঘাটে উপজেলা নির্বাহী কর্মকর্তা ওয়াহিদা খানম (৩৫)-কে ঢাকায় আনা হয়েছে। উন্নত চিকিৎসার জন্য আজ বৃহস্পতিবার দুপুরের দিকে রংপুর থেকে এয়ার অ্যাম্বুলেন্সে করে তাকে ঢাকায় আনা হয়। 

পরে রাজধানীর আগাঁরগাওস্থ ন্যাশনাল ইনস্টিটিউট অব নিউরোসায়েন্স ও হাসপাতালে তাকে ভর্তি করা হয়েছে। জনপ্রশাসন প্রতিমন্ত্রী ফরহাদ হোসেন দুপুরের দিকে এ তথ্য গণমাধ্যমকে নিশ্চিত করেন।

ঘটনার মূল রহস্য উদ্ঘাটনে ৭ সদস্যের তদন্ত কমিটি গঠন করা হয়েছে বলেও জানান তিনি।

এর আগে বুধবার (২ সেপ্টেম্বর) দিবাগত রাত ৩টার দিকে একটি ডাকাত দল ঘোড়াঘাট উপজেলা পরিষদ চত্বরে উপজেলা নির্বাহী কর্মকর্তা ওয়াহিদা খানমের সরকারি বাসভবনের জানালার গ্রীল ভেঙ্গে ঘরে প্রবেশ করে। এ সময় ডাকাত দলের সদস্যরা স্বর্ণালস্কারসহ টাকা পয়সা লুট করার চেষ্টা করলে উপজেলা নির্বাহী কর্মকর্তা ও তার বাবা বাধা দেয়। ফলে ডাকাত দলের সদস্যরা তাকে ও তার বাবাকে বেদম মারধরও ছুরি দিয়ে কুপিয়ে গুরুতর আহত করে পালিয়ে যায়।

পরে তাদের উদ্ধার করে স্থানীয় হাসপাতালে পরে রংপুর মেডিকেল হলেজ হাসপাতালে নেওয়া হয়। ওয়াহিদা খানমের অবস্থা গুরুতর হওয়ায় তাকে আইসিইউতে নেয়া হয়। তবে তার বাবা এখনও রমেক হাসপাতালেই চিকিৎসাধীন রয়েছেন।

ঘোরাঘাট থানার অফিসার ইনচার্জ মো. আমিরুল ইসলাম জানান, ‘ডাকাতির খবর পেয়ে রাতেই পুলিশের টহল দল উপজেলা নির্বাহী কর্মকর্তার বাড়িতে যায়। ডাকাত দলের সদস্যরা পালিয়ে যাওয়ায় তাদের আটক করা সম্ভব হয়নি। তবে ডাকাত দলের সদস্যরা বাড়ি থেকে কোনো মালামাল লুট করতে পারেনি।’

এদিকে দিনাজপুর জেলা প্রশাসক, র‌্যাব, পুলিশ সুপার মো. আনোয়ার হোসেন ঘটনাস্থল পরিদর্শন করেছেন। জেলা প্রশাসক মাহামুদুল আলম বলেন, ‘এ ঘটনায় দ্রুত প্রয়োজনীয় ব্যবস্থা নেয়া হবে।’