স্কুলছাত্র মোয়াজ্জেম হত্যায় ১১ জনের মৃত্যুদণ্ডের আদেশ

প্রকাশিত: ৪:১৯ অপরাহ্ণ , জানুয়ারি ৩১, ২০২৪

জয়পুরহাটে চাঞ্চল্যকর ৯ম শ্রেণীর স্কুলছাত্র মোয়াজ্জেম হোসেন হত্যা মামলায় ১১ আসামিকে মৃত্যুদণ্ডের আদেশ দিয়েছেন আদালত। সেইসঙ্গে প্রত্যেক আসামিকে ৫০ হাজার টাকা অর্থদণ্ড দেওয়া হয়েছে।

আজ বুধবার (৩১ জানুয়ারি) দুপুরে জয়পুরহাটের অতিরিক্ত জেলা ও দায়রা জজ-২ আদালতের বিচারক আব্বাস উদ্দিন এ রায় ঘোষণা করেন।

মৃত্যুদণ্ডপ্রাপ্ত আসামিরা হলেন- জয়পুরহাট শহরের দেওয়ানপাড়া এলাকার মৃত ইউনুস আলী দেওয়ানের পুত্র বেদারুল ইসলাম বেদিন, শান্তিনগর এলাকার শাহজাহান মৃধার পুত্র সরোয়ার রওশন সুমন, আরাফাত নগরের মোসলেম উদ্দিনের পুত্র মশিউর রহমান এরশাদ বাবু, দক্ষিণ দেওয়ানপাড়ার মোহাম্মদ আলী মোখলেসারের পুত্র মনোয়ার হোসেন মনছুর, একই এলাকার ওয়ারেছ আলীর পুত্র টুটুল, দেওয়ান পাড়ার আজিজ মাস্টারের পুত্র রানা, তেঘর বিশার কাবেজ উদ্দীন মন্ডলের পুত্র নজরুল ইসলাম, দেবীপুর কাজী পাড়ার মৃত মগবুল হোসেনের পুত্র শাহী, দেবীপুর মন্ডল পাড়ার রফিকের পুত্র সুজন, কাজী পাড়ার নুর হোসেন নুমুর পুত্র রহিম, পার্শ্ববর্তী নওগাঁ জেলার ধামইরহাট উপজেলার ধুরইল আবুল কাশেমের পুত্র ডাবলু।

মামলার সংক্ষিপ্ত বিবরণে জানা গেছে, জয়পুরহাটের ফজলুর রহমানের পুত্র পাঁচুর চক মাধ্যমিক উচ্চ বিদ্যালয়ের নবম শ্রেণীর ছাত্র মোয়াজ্জেম হোসেন ২০০২ সালের ২৮ জুন বিকালে বাড়ি থেকে বেড়ানোর কথা বলে রাতে বাড়ি ফিরেনি। অনেক খোজাখুঁজির পর পরের দিন সকালে জয়পুরহাট-জামালগঞ্জ সড়কের পাশে আহত অবস্থায় মোয়াজ্জেমকে পাওয়া যায়।

স্থানীয়রা তাকে উদ্ধার করে আধুনিক জেলা হাসপাতালে ভর্তি করায়। চিকিৎসাধীন অবস্থায় ওইদিন রাতে তার মৃত্যু হয়।
পরে উল্লেখিত আসামিদের বিরুদ্ধে তার বাবা বাদী হয়ে মামলা করেন। দীর্ঘ শুনানি শেষে আদালত আজ এ রায় দেন আদালত।

রায়ে আসামিদের ফাঁসির দড়িতে ঝুলিয়ে মৃত্যু নিশ্চিত করার নির্দেশ দেওয়া হয়।

আসামিদের মধ্যে ৬ জন পলাতক।

Loading