ভোটের মাঠে নাশকতা রুখে দিতে প্রস্তুত পুলিশবাহিনী

প্রকাশিত: ৪:৫৫ অপরাহ্ণ , জানুয়ারি ৫, ২০২৪

ভোটের মাঠে নাশকতাকারীদের রুখে দিতে প্রস্তুত পুলিশসহ সমন্বিত আইনশৃংখলারক্ষা বাহিনী, জানিয়েছেন পুলিশ মহাপরিদর্শক চৌধুরী আবদুল্লাহ আম মামুন। গোয়েন্দা তথ্যের ভিত্তিতে সব ধরণের বিশৃংখলা রোধ করা হবে বলেও জানান আইজিপি।

শুক্রবার (৫ জানুয়ারি) দুপুরে রাজধানীর উইলস লিটল ফ্লাওয়ার স্কুল অ্যান্ড কলেজে আয়োজিত দ্বাদশ জাতীয় নির্বাচন উপলক্ষে নিরাপত্তা ব্রিফিংয়ে এ কথা বলেন তিনি।

দ্বাদশ জাতীয় সংসদ নির্বাচন সামনে রেখে আইন শৃংখলা রক্ষায় সব ধরনের প্রস্তুতি প্রায় সম্পন্ন। ভোটাররা নির্বিঘেœ যাতে কেন্দ্রে যেতে পারেন- সেজন্য প্রতিটি কেন্দ্রে পুলিশ, র‌্যাব, বিজিবি, আনসারসহ সব বাহিনীর সমন্বয়ে থাকবে ব্যাপক নিরাপত্তা। শুক্রবার রাত থেকেই কেন্দ্র ও কেন্দ্রের বাইরে মোতায়েন করা হবে নিরাপত্তা বাহিনীর সদস্যদের।

নির্বাচন সামনে রেখে রাজধানীর কাকরাইলে উইলস লিটল ফ্লাওয়ার স্কুলে অস্থায়ী মনিটরিং সেল পরিদর্শনে আসেন পুলিশ মহাপরিদর্শক। পরে কথা বলেন সাংবাদিকদের সাথে। নির্বাচনে নাশকতা রুখতে সব ব্যবস্থা নেয়ার কথা জানান পুলিশ প্রধান।

সব বাহিনীর মধ্যে দারুন সমন্বয় হয়েছে জানিয়ে আইজিপি বলেন, ভোটাররা যাতে সুষ্ঠুভাবে ভোট দিতে পারে সেজন্য সব ব্যবস্থা করা হয়েছে।

তিনি বলেন, সবাই মিলে উৎসবমুখর পরিবেশে নির্বাচন উপহার দেওয়ার জন্য পুলিশ বাহিনী ইতোমধ্যে প্রস্তুত রয়েছে। প্রতিটি সদস্যকে আমরা ব্রিফ করেছি তাদের দায়িত্ব সম্পর্কে। আমরা সবার সহযোগিতায় প্রস্তুতি পর্ব সম্পন্ন করেছি।

আইজিপি বলেন, নির্বাচনকে কেন্দ্র করে নাশকতার চেষ্টা করলে এর ফল ভালো হবে না। আমরা তাৎক্ষণিক নাশকতাকারীদের বিরুদ্ধে আইনি ব্যবস্থা গ্রহণ করব।

এদিকে, রাজধানীর মিরপুরে বিজিবির অস্থায়ী বেইজ ক্যাম্প পরিদর্শন শেষে মহাপরিচালক বলেন, নির্বাচনের মাঠে আছেন বিজিবির গোয়েন্দা সদস্যরাও। পরিস্থিতি যাই হোক না কেন নিরাপত্তার জন্য সবধরনের ব্যবস্থা নেয়ার কথা জানিয়েছেন বিজিবি মহাপরিচালক।

অন্যদিকে, সুষ্ঠু ও অংশগ্রহণমূলক নির্বাচনের জন্য ৩ জানুয়ারি থেকে মাঠে আছে সশস্ত্র বাহিনী।

Loading