১০ ডিসেম্বরের সমাবেশ হচ্ছে না

প্রকাশিত: ২:২৯ অপরাহ্ণ , ডিসেম্বর ৫, ২০২৩

আওয়ামী লীগের সাধারণ সম্পাদক ওবায়দুল কাদের জানিয়েছেন, নির্বাচন কমিশনের অনুমতি না মেলায় ১০ ডিসেম্বর মানবাধিকার দিবসে আওয়ামী লীগের সমাবেশ হচ্ছে না। তেজগাঁওয়ে ঢাকা জেলা দলীয় কার্যালয়ে আলোচনা সভা কর্মসূচি পালন করা হবে।

মঙ্গলবার (৫ ডিসেম্বর) সকালে হোসেন শহীদ সোহরাওয়ার্দীর ৬০তম মৃত্যুবার্ষিকীতে সুপ্রিম কোর্ট সংলগ্ন হোসেন শহীদ সোহরাওয়ার্দীর সমাধিসৌধে শ্রদ্ধা জানানোর পর বিষয়টি নিশ্চিত করেন তিনি।

ওবায়দুল কাদের বলেন, আগামী ১০ ডিসেম্বর মানবাধিকার দিবস। এই দিবসে বায়তুল মোকাররমের দক্ষিণ গেটে সমাবেশ করার একটা কর্মসূচি ছিল আমাদের। নির্বাচন কমিশনের কাছে আবেদনও করেছিলাম। সে আবেদন তারা গ্রহণ করেননি। সমাবেশের নামে শোডাউন হবে সে আশঙ্কা করছে তারা। নির্বাচনী বিধির বাইরে আমরা যেতে চাই না।

সোহরাওয়ার্দীর সমাধিতে শ্রদ্ধা জানানোর পর বিএনপির উদ্দেশে সেতুমন্ত্রী বলেন, ‘গণতন্ত্র ত্রুটিমুক্ত করতে কাজ করছে আওয়ামী লীগ। যারা নির্বাচন বানচাল করতে হরতাল-অবরোধ করছে, তারা গণতান্ত্রিক শক্তি নয়।’

গণতন্ত্রের জন্যই হোসেন শহীদ সোহরাওয়ার্দী আজীবন সাধনা করেছেন উল্লেখ করে তিনি বলেন, ‘আমরা তার প্রদর্শিত পথ ধরে আমাদের গণতন্ত্রের সংগ্রাম এগিয়ে নিয়ে যাবো। গণতন্ত্রকে ত্রুটিমুক্ত করে পারফেক্ট ডেমোক্রেসি প্রতিষ্ঠার জন্য নিরলসভাবে বঙ্গবন্ধুকন্যা শেখ হাসিনার নেতৃত্বে গণতন্ত্রের লড়াই চালিয়ে যাবো। আজকের দিনে এটাই আমাদের অঙ্গীকার।’

এসময় উপস্থিত ছিলেন আওয়ামী লীগের সভাপতিমণ্ডলীর সদস্য ড. আব্দুর রাজ্জাক, যুগ্ম সাধারণ সম্পাদক আ ফ ম বাহাউদ্দিন নাছিম, সাংগঠনিক সম্পাদক বিএম মোজাম্মেল হক, দপ্তর সম্পাদক বিপ্লব বড়ুয়া, শিক্ষা ও মানবসম্পদ বিষয়ক সম্পাদক শামসুন্নাহার চাপা, কৃষি ও শিক্ষা বিষয়ক সম্পাদক ফরিদুন্নাহার লাইলী, উপ-প্রচার ও প্রকাশনা বিষয়ক আব্দুল আউয়াল শামীম, উপ-দপ্তর সায়েম খান, কার্যনির্বাহী সদস্য সাহাবুদ্দিন ফরাজী প্রমুখ।

Loading