সাহাবউদ্দিন মেডিক্যালের সহকারী পরিচালক র‌্যাব হেফাজতে

প্রকাশিত: ৬:০৭ অপরাহ্ণ , জুলাই ১৯, ২০২০

শাহাবুদ্দিন মেডিক্যাল কলেজ হাসপাতালে কভিড-১৯ পরীক্ষা করা হচ্ছে না বলে বিজ্ঞাপন প্রচার করা হলেও বাস্তবে হাসপাতালটি গোপনে পরীক্ষা চালিয়ে যাচ্ছিল। এটি হাসপাতালের একটি প্রতারণা বলে জানিয়েছেন র‌্যাবের নির্বাহী ম্যাজিস্ট্রেট মো. সারোয়ার আলম।

এদিকে অভিযানে অসহযোগিতা করায় সাহাবউদ্দিন মেডিক্যাল কলেজ হাসপাতালের সহকারী পরিচালক ডা. মোহাম্মদ আবুল হাসনাতকে নিজেদের হেফাজতে নিয়েছে র‌্যাব। তার হাতে হাতকড়া পরানো হয়েছে।

রাজধানীর গুলশান-২-এ অবস্থিত সাহাবদ্দিন মেডিক্যাল কলেজ হাসপাতালে অভিযান চালাচ্ছে র‌্যাব। রবিবার (১৯ জুলাই) দুপুরে করোনার চিকিৎসায় ডেডিকেটেড হাসপাতালটিতে অভিযান শুরু করে র‌্যাবের একটি দল। অভিযানে অসহযোগিতা করায় বিকেল ৫টার দিকে ডা. আবুল হাসনাতকে হেফাজতে নেয় র‌্যাব।

অভিযান চলাকালে র‌্যাবের নির্বাহী ম্যাজিস্ট্রেট মো. সারোয়ার আলম বলেন, হাসপাতালটি অনুমোদন ছাড়াই র‌্যাপিড কিট দিয়ে কভিড-১৯ আক্রান্ত রোগীদের অ্যান্টিবডি টেস্টের কাজ করছিল। এ ছাড়া তারা অ্যান্টিবডি পরীক্ষার নামে রোগীদের কাছ থেকে ৩ থেকে ১০ হাজার টাকা করেও নেয় বলে অভিযোগ পেয়েছি