কলেজছাত্রীকে অপহরণ-ধর্ষণের দায়ে ৬ জনের মৃত্যুদণ্ড

প্রকাশিত: ৫:৫০ অপরাহ্ণ , এপ্রিল ৫, ২০২৩

নাটোরের সিংড়ায় কলেজছাত্রীকে অপহরণ ও গণধর্ষণ মামলায় ৬ জনকে মৃত্যুদণ্ড ও ৪ জনকে যাবজ্জীবন কারাদণ্ডের আদেশ দিয়েছে আদালত। দণ্ডপ্রাপ্তদের প্রত্যেককে ১ লাখ টাকা জরিমানা করা হয়েছে।

বুধবার বেলা ১১টায় নাটোরের নারী ও শিশু দমন ট্রাইব্যুনালের বিচারক (জেলা ও দায়রা জজ) মুহাম্মদ আব্দুর রহিম এই আদেশ দিয়েছেন।

মামলায় মো: নাছির নামে এক আসামিকে খালাস দেওয়া হয়েছে।

মৃত্যুদণ্ডপ্রাপ্তরা হলেন মোঃ সাব্বির আহম্মেদ, রেজাউনুল ওরফে রাব্বী, নাজমুল হক, মোঃ রাজিবুল হাসান, মোঃ রিপন ও মোঃ শহিদুল। অপরদিকে যাবজ্জীবন প্রাপ্তরা হলেন মোঃ মনিরুল ইসলাম, মোঃ খায়রুল ইসলাম, মোঃ আতাউল ইসলাম ওরফে আতাউর ও মোঃ রেজাউল করিম।

আদালত সূত্রে জানা যায়, ২০১৯ সালের বড়াইগ্রাম উপজেলার চান্দাইগ্রামের ওই কলেজছাত্রীকে কৌশলে পাশের সিংড়া উপজেলার কলম মির্জাপুর গ্রামে নিয়ে যায় প্রেমিক সাব্বির আহম্মেদ। সারাদিন ঘোরাঘুরির পর বন্ধুদের সঙ্গে রাতে কলম মির্জাপুর গ্রামের ঈদগাহ মাঠে নিয়ে পালাক্রমে ধর্ষণ করে তারা।

এ ঘটনায় সিংড়া থানায় মামলা দায়ের করার পর দীর্ঘ ১০ বছর তদন্ত ও সাক্ষ্য প্রমাণ শেষে আদালত আজ বুধবার এ রায় প্রদান করেন।

আদালতের স্পেশাল পিপি অ্যাডভোকেট আনিসুর রহমান জানান, মামলার ১১ আসামির মধ্যে ৬ জনকে মৃত্যুদণ্ড ও ৪ জনকে যাবজ্জীবন কারাদণ্ড প্রদান করা হয়েছে। তাদের প্রত্যেককে ১ লাখ টাকা করে করা জরিমানার টাকা বাদিকে দেয়ার নির্দেশ দিয়েছেন বিচারক।

এছাড়া মামলার অপর আসামি মোঃ নাছিরকে খালাস দেওয়া হয়েছে। নাছির আদালতে অনুপস্থিত ছিলেন।

Loading