দুর্ভিক্ষ আসছে এবং বিষয়টি সত্য: সিপিডি

প্রকাশিত: ৪:৫৯ অপরাহ্ণ , অক্টোবর ২০, ২০২২

‘দুর্ভিক্ষ আসছে এবং বিষয়টি সত্য’- আন্তর্জাকিত খাদ্য সংস্থা ফুড অ্যান্ড এগ্রিকালচার অরগানাইজেশন এমটাই বলছে বলে দাবি করেছেন সেন্টার ফর পলিসি ডায়লগ (সিপিডি)-র নির্বাহী পরিচালক ড. ফাহমিদা খাতুন।

জলবায়ু পরিবর্তনের ফলে কৃষি উৎপাদন ব্যাহত হওয়ার পাশাপাশি আবহাওয়া ভিন্ন রূপ হিসেবে বন্যা, খরা বাড়ছে। সেই সঙ্গে রাশিয়া-ইউক্রেন যুদ্ধ এর ওপর প্রভাব ফেলছে বলে জানান তিনি।

বৃহস্পতিবার (২০ অক্টোবর) সকালে রাজধানীর ধানমন্ডিতে সেন্টার ফর পলিসি ডায়লগ (সিপিডি) কার্যালয়ে ‘বিশ্ব অর্থনীতিতে মন্দার আভাস ও বাংলাদেশের চ্যালেঞ্জ উত্তরণ কোন পথে?’ শীর্ষক মিডিয়া ব্রিফিংয়ে এ অভিমত তুলে ধরেন ফাহমিদা।

তিনি বলেন, “কৃষি উৎপাদনে জ্বালানি ও সার ব্যবহার করা হয়। রাশিয়া-ইউক্রেন যুদ্ধের ফলে শুধু পণ্য সরবরাহে সমস্যা হয়নি, কৃষি উৎপাদন কমে যাওয়ারও আশঙ্কা রয়েছে।” এ অবস্থায় খাদ্য সংকট মোকাবিলার জন্য প্রস্তুতি নিতে হবে বলে জানান তিনি।

বর্তমান পরিস্থিতি বিবেচনায় বাংলাদেশ সাত ধরণের সংকটে পড়েছে বলে মনে করে সিপিডি। সেগুলো হলো- ডলার সংকট, জ্বালানি সংকট, মূল্যস্ফীতি, খাদ্য সংকট, রাশিয়া-ইউক্রেন সংকট, কোভিড ও জলবায়ু পরিবর্তনজনিত সংকট।

ফাহমিদা খাতুন বলেন, “সংকটগুলোর মধ্যে ডলার, জ্বালানি, মূল্যস্ফীতি ও খাদ্য সংকটের কারণে অন্য সংকটগুলো আরও ঘনীভূত হচ্ছে। সার্বিকভাবে ওই সাতটি সংকট আমাদের জন্য চ্যালেঞ্জ হয়ে দাঁড়িয়েছে।”

এসব সংকট সমাধানে সুপারিশও দিয়েছে সংস্থাটি।

বিফ্রিংয়ে উপস্থিত ছিলেন- সিপিডির গবেষণা পরিচালক খন্দকার গোলাম মোয়াজ্জেম, সিনিয়র রিসার্চ ফেলো তৌফিকুল ইসলাম খান প্রমুখ।

Loading