মারুফা হত্যার ন্যায় বিচারের দাবীতে ময়মনসিংহে মানববন্ধন ও প্রতিবাদ সমাবেশ

প্রকাশিত: ৯:৩২ অপরাহ্ণ , জুলাই ৫, ২০২০

নেত্রকোণার মোহনগঞ্জের বহুল অালোচিত গৃহকর্মী মারুফাকে ধর্ষণ ও পরবর্তীতে হত্যাকে আত্মহত্যা বলে চালিয়ে দেওয়ার অপচেষ্টা, দ্রুত পোস্টমর্টেম রিপোর্ট প্রকাশ ও ধর্ষণ-হত্যাকান্ডের সাথে সম্পৃক্ত বারহাট্রার সিংধা ইউনিয়নের চেয়ারম্যান মাহবুব মোর্শেদ কাঞ্চনের ফাসির দাবীতে ময়মনসিংহের ঐতিহাসিক ফিরোজ জাহাঙ্গীর চত্বরে ৫ এপ্রিল রবিবার সকাল ১১ ঘটিকায় মানববন্ধন ও প্রতিবাদ সমাবেশ অনুষ্ঠিত হয়।

মারুফা মঞ্চ ময়মনসিংহ এ সমাবেশের আয়োজন করে। অংশগ্রহনকারীরা মুখে কালো কাপড় বেধে মানববন্ধন ও প্রতিবাদ সমাবেশ করেন। মারুফা মঞ্চ, ময়মনসিংহের অাহবায়ক মাহমুদা হোসেন মলির সভাপতিত্বে মানববন্ধন ও প্রতিবাদ সমাবেশে বক্তব্য রাখেন মময়মনসিংহ জেলা আওয়ামী লীগের যুগ্ম-সাধারণ সম্পাদক কাজী অাজাদ জাহান শামীম, জেলা নারী নির্যাতন প্রতিরোধ কমিটির সভাপতি অ্যাডভোকেট নজরুল ইসলাম চুন্নু, জেলা মহিলা অাওয়ামী লীগের সহ-সভাপতি অধ্যাপক দিলরুবা সারমীন, সহ-সভাপতি জিনাত রেহেনা, সাংগঠনিক সম্পাদক জেসমিন মিনু, নেত্রকোনাস্থ মোহনগঞ্জ সমিতির আহবায়ক মো: ইকবাল হোসাইন, ব্রহ্মপুত্র সুরক্ষা আন্দোলনের অাহবায়ক আবুল কালাম আল আজাদ, বারহাট্রার সিংধা ইউনিয়ন পরিষদের নির্বাচিত মহিলা সদস্য সন্ধ্যা রানী রায় প্রমুখ।

মারুফা ধর্ষণ ও হত্যাকান্ডের কুশীলব মাহবুব মোর্শেদ কাঞ্চনের দৃষ্টান্তমূলক শাস্তির দাবীতে অনুষ্ঠিত মানববন্ধন ও প্রতিবাদ সমাবেশে সংহতি প্রকাশ করেন জেলা নিরাপদ সড়ক চাই (নিসচা) আন্দোলনের সভাপতি আব্দুল কাদের চৌধুরী মুন্না, অনসাম্বল থিয়েটারের সভাপতি আবুল মনসুর, কবি শামীম অাশরাফ, জেলা যুবলীগের সদস্য মেহেদী হাসান ও নারী সাংবাদিক সংঘের আহবায়ক বাবলী আকন্দ সহ সুশীল সমাজের নেতৃবৃন্দ।

প্রতিবাদ সমাবেশটি সঞ্চালনা করেন জাগ্রত ময়মনসিংহের সদস্য সুমন চন্দ্র ঘোষ।মানববন্ধন ও প্রতিবাদ সমাবেশে বক্তারা সকলেই প্রায় সমস্বরে বলেন, ধর্ষক ও হত্যাকারী দলীয় পরিচয় দিয়ে পার পেতে পারেনা, অনতিবিলম্বে মারুফা ধর্ষণ ও হত্যার পোস্টমর্টেম রিপোর্ট প্রকাশ করে দোষীদের শাস্তি নিশ্চিত করতে হবে।

হত্যাকান্ডের শিকার মারুফার মা অাকলিমা বেগম কান্নাজড়িত কন্ঠে বলেন, মাহবুব মোর্শেদ চেয়ারম্যান অামার নাবালিকা কন্যাকে উত্তক্ত করত আমার মেয়ে বিষয়টি আগেই আমাকে অবগত করেছিল। আমিও তার স্ত্রীর সাথে কথা বলে এ ব্যবস্থা নিতে বলেছিলাম। শেষ পর্যন্ত তাকে রক্ষা করতে পারলাম না। তাকে  চিহ্ন   অর্থ ও ক্ষমতার জোড়ে জগণ্যতম অপরাধ ধামাচাপা দেওয়ার চেষ্টা করছে এবং অামাকেও ভয়-ভীতি দেখাচ্ছে।  মারুফার মা আকলিমা বেগম মাননীয় প্রধানমন্ত্রীর হস্তক্ষেপ কামনা করেন এবং দোষীদের ফাসি নিশ্চিত করার দাবীও জানান।