মাস্টারকার্ডের ‘স্পেন্ড অ্যান্ড উইন’ ক্যাম্পেইন- ‘মিস্টিক্যাল মালদ্বীপ ২০২২’ এর বিজয়ীদের নাম ঘোষণা

প্রকাশিত: ৫:৪৬ অপরাহ্ণ , জুন ২৬, ২০২২

মাস্টারকার্ডের ‘স্পেন্ড অ্যান্ড উইন’ ক্যাম্পেইন- ‘মিস্টিক্যাল মালদ্বীপ ২০২২’ এর বিজয়ীদের নাম ঘোষণা করা হয়েছে।
এই ক্যাম্পেইনের উদ্দেশ্য ছিল পবিত্র রমজান মাসে গ্রাহকদের বিভিন্ন কেনা-কাটায় অফার প্রদানের মাধ্যমে তাদের ডিজিটাল পেমেন্টে আরো উৎসাহিত করাঢাকা, বাংলাদেশ- ২৩ জুন, ২০২২: মাস্টারকার্ড আজ অ্যাওয়ার্ড প্রদান অনুষ্ঠানের মধ্য দিয়ে ‘মিস্টিক্যাল মালদ্বীপ’ থিমের ‘স্পেন্ড অ্যান্ড উইন’ ক্যাম্পেইন এর সমাপ্তি টেনেছে। সম্প্রতি হয়ে যাওয়া এই ক্যাম্পেইনের লক্ষ্য ছিল পবিত্র রমজান মাসজুড়ে মাস্টারকার্ডের ক্রেডিট, ডেবিট এবং প্রিপেইড কার্ড ব্যবহার করে কেনাকাটায় অফার দিয়ে কার্ডহোল্ডারদের আকর্ষণীয় পুরস্কার জেতার সুযোগ করে দেওয়া এবং দেশে ও দেশের বাইরে রিটেইল লেনদেন বৃদ্ধিতে ভূমিকা রাখা।ক্যাম্পেইনে ‘টপ প্রাইজ’ হিসেবে সঙ্গীসহ মালদ্বীপে বিলাসবহুল ভ্রমণের পুরস্কার জিতেছেন মিউচুয়াল ট্রাস্ট ব্যাংকের মাস্টারকার্ড কার্ডহোল্ডার মোহাম্মদ নজরুল ইসলাম। এছাড়া, অন্য শীর্ষ ৫০ জন অংশগ্রহণকারী পাবেন ইলেকট্রনিক্স, গ্যাজেট, ডাইনিং অ্যান্ড লাইফস্টাইল ভাউচার সহ আকর্ষণীয় সব পুরস্কার।ক্যাম্পেইন চলাকালীন বিগত ২০ মার্চ থেকে ৮ মে, যে সকল মাস্টারকার্ড কার্ডহোল্ডাররা অন্তত ১ হাজার টাকা কিংবা ২৫ মার্কিন ডলার বা তার চেয়ে বেশি মূল্যের ৪টি লেনদেন সম্পন্ন করেছেন তারা স্বয়ংক্রিয়ভাবে ক্যাম্পেইনের অংশ হয়ে পরবর্তী ধাপের জন্য নির্বাচিত হয়েছেন। এসব কার্ডহোল্ডাররা দেশের অভ্যন্তরে প্রতিবার ১ হাজার টাকা বা তার চেয়ে বেশি পিওএস রিটেইল ট্রানজেকশন কিংবা দেশের বাইরে প্রতিবার ২৫ মার্কিন ডলার বা এর চেয়ে বেশি মূল্যের রিটেইল ই-কমার্স ট্রানজেকশনে ২ পয়েন্ট করে পেয়েছেন। এছাড়া, তাদের ৩ পয়েন্ট করে দেয়া হয়েছে দেশের অভ্যন্তরে প্রতিবার ১ হাজার টাকা বা তার চেয়ে বেশি ই-কমার্স রিটেইল ট্রানজেকশন কিংবা দেশের বাইরে প্রতিবার ২৫ মার্কিন ডলার বা এর চেয়ে বেশি মূল্যের পিওএস রিটেইল ট্রানজেকশনে। ক্যাম্পেইন শেষে এবার সর্বোমোট পয়েন্টের হিসাবে বিজয়ীদের নাম ঘোষণা করা হয়েছে। মাস্টারকার্ড বাংলাদেশের কান্ট্রি ম্যানেজার সৈয়দ মোহাম্মদ কামাল বলেন, “মিস্টিক্যাল মালদ্বীপ’ থিমের ‘স্পেন্ড অ্যান্ড উইন ক্যাম্পেইন ২০২২’ এর সব বিজয়ীকে আমি অভিনন্দিত করছি। এই ক্যাম্পেইন থেকে পাওয়া অভাবনীয় সাড়া মূল্যবান কার্ডহোল্ডারদের জন্য এ ধরনের উদ্যোগ বজায় রাখার ক্ষেত্রে আমাদের আরো অনুপ্রেরণা দিয়েছে।”এই ক্যাম্পেইনে মাস্টারকার্ডের যেসব পার্টনার ব্যাংক ও আর্থিক প্রতিষ্ঠান সম্পৃক্ত ছিল, সেগুলো হলো:- এবি ব্যাংক, আল-আরাফাহ ব্যাংক, ব্র্যাক ব্যাংক, ব্যাংক এশিয়া, ইস্টার্ন ব্যাংক লিমিটেড, ঢাকা ব্যাংক লিমিটেড, ডাচ-বাংলা ব্যাংক, ইসলামী ব্যাংক লিমিটেড, মিউচুয়াল ট্রাস্ট ব্যাংক, ন্যাশনাল ব্যাংক, প্রাইম ব্যাংক, প্রিমিয়ার ব্যাংক, পূবালী ব্যাংক, দ্য সিটি ব্যাংক, ইউনাইটেড কমার্শিয়াল ব্যাংক, সাউথইস্ট ব্যাংক লিমিটেড, স্ট্যান্ডার্ড চার্টার্ড ব্যাংক এবং লঙ্কাবাংলা ফিন্যান্স। =সমাপ্ত=মাস্টারর্কাড সর্ম্পকে (এনওয়াইএসই: এমএ): www.mastercard.com মাস্টারকার্ড হচ্ছে বিশ্বব্যাপী একটি আধুনিক প্রযুক্তিভিত্তিক লেনদেন সেবা প্রদানকারী প্রতিষ্ঠান। সুরক্ষিত, সহজ এবং গ্রহণযোগ্য লেনদেন নিশ্চিত করার মাধ্যমে অন্তর্ভুক্তিকরণ এবং শক্তিশালী ডিজিটাল অর্থিনীতির সাথে গ্রাহকদের সংযোগ স্থাপন করাই আমাদের মূল লক্ষ্য। সুরক্ষিত ডেটা এবং নেটওয়ার্ক এবং অংশীদারিত্বের মাধ্যমে আমাদের উদ্ভাবন এবং ডিজিটাল সল্যুশন ব্যক্তি, আর্থিক প্রতিষ্ঠান, সরকার এবং ব্যবসা বাণিজ্যের সর্বোত্তম সম্ভাবনাকে পুনরুত্পাদন করতে সহায়তা করে এবংঅধিকতর সহজ, নিরাপদ ও কার্যকর করে তুলে। ডিসেন্সি কৌশেন্ট বা ডিকিউ এবং আমাদের সংস্কৃতি এবং আমাদের প্রতিষ্ঠানের অব্ভন্তরীন এবং বাইরে যা কিছু হয় তা পরিচালনা করতে সহায়তা করে। ২১০টিরও বেশি দেশ ও অঞ্চলে জুড়ে সেবা দেয়ার মাধ্যমে আমরা একটি টেকসই বিশ্ব তৈরি করার প্রচেষ্টা চালিয়ে যাচ্ছি যা সবার জন্য অমূল্য সম্ভাবনা খুলে দেবে ।