ক্রিকেটকে বিদায় বললেন কিংবদন্তি মিতালি রাজ

প্রকাশিত: ৪:১৩ অপরাহ্ণ , জুন ৮, ২০২২

ভারতীয় নারী ক্রিকেট দলের ওয়ানডে অধিনায়ক এবং কিংবদন্তিতুল্য মিতালি রাজ ক্রিকেট থেকে অবসর নিয়েছেন। ৩৯ বছর বয়সী মিতালি রাজের অবসর নিয়ে জোর গুঞ্জন চলছিল শেষ কিছু দিন ধরে। সে গুঞ্জনের ইতি টানলেন তিনি নিজেই।

বুধবার টুইটারে একটি পোস্টের মাধ্যমে নিজের সিদ্ধান্তের কথা ঘোষণা দেন তিনি। ভারতের হয়ে তিন ফরম্যাটেই খেলা মিতালি সবশেষ খেলেছিলেন নারী বিশ্বকাপে, গত ২৭ মার্চ। সেটাই হয়ে রইলো তার ক্যারিয়ারের শেষ ম্যাচ।

নারীদের আন্তর্জাতিক ক্রিকেটে ভারতীয় মিতালি রাজের চেয়ে বেশি সময় ধরে ক্যারিয়ার গড়েননি আর কেউই। এই ভারতীয় নারী ক্রিকেটার ২৩ বছর আন্তর্জাতিক ক্রিকেটে ভারতকে সার্ভিস দিয়েছেন।পোস্ট করা এক বিবৃতিতে মিতালি লিখেছেন, “ছোটবেলাতেই একটা লক্ষ্য স্থির করে নিয়েছিলাম, ভারতের নীল জার্সি পরব বলে। দেশের প্রতিনিধিত্ব করা আমার কাছে সবচেয়ে বেশি সম্মানের। যাত্রাপথে বেশিরভাগ সময়টাই ভালো ছিল, খুব কম সময়েই তিক্ত অভিজ্ঞতা হয়েছে। প্রত্যেকটা অভিজ্ঞতাই আমার কাছে আলাদা ছিল।”

তিনি আরও লিখেন, “গত ২৩ বছর আমার জীবনে সবচেয়ে সুন্দর, পরিপূর্ণ এবং উপভোগ্য বছর ছিল। সব যাত্রাই এক দিন শেষ হয়। আজ সব ধরনের আন্তর্জাতিক ক্রিকেট থেকে আমি অবসর নিচ্ছি।’

নারীদের ওয়ানডে ক্রিকেটে সবচেয়ে বেশি রান সংগ্রহকারী মিতালি। ভারতের হয়ে ২৩২ ম্যাচে ৭ হাজার ৮০৫ রান করেছেন তিনি। যার গড় ৫০.৬৮! ১২ টেস্ট, ২৩২ ওয়ানডে ও ৮৯ টি-টোয়েন্টি খেলেন তিনি। ৮ সেঞ্চুরি ও ৬৮টি হাফ সেঞ্চুরি করে গেছেন এই কিংবদন্তী।

১৯৯৯ সালে মাত্র ১৬ বছর বয়সে ইংল্যান্ড নারী দলের বিপক্ষে আন্তর্জাতিক ক্রিকেটে অভিষেক ঘটে মিতালির। ওয়ানডে দিয়ে অভিষেক ঘটা মিতালি ২০০২ সালে টেস্ট ক্রিকেটে পা রাখেন।

আর নেমেই মাত্র ১৯ বছর বয়সে সর্বকনিষ্ঠ নারী ক্রিকেটার হিসেবে টেস্টে দ্বিশতক হাঁকান তিনি। করেছিলেন ২১৪ রান। টেস্ট ক্যারিয়ারেও ভারতীয় এই ক্রিকেটার সর্বোচ্চ ১৯ বছর ধরে খেলে গেছেন।

ভারতীয় ক্রিকেটে দারুণ শুরু করার কারণে ২০০৩ সালে অর্জুনা অ্যাওয়ার্ড জেতেন মিতালি। এর এক বছর পর সর্বকনিষ্ঠ নারী ক্রিকেটার হিসেবে টেস্ট দলের অধিনায়কত্বও পান তিনি। তবে বর্তমানে এই তালিকায় আছেন তিন নম্বরে।

টেস্ট ক্যারিয়ার খুব একটা লম্বা না হলেও ভারতীয় ওয়ানডে দলের সেরা মুখ ছিলেন মিতালি। দলটির হয়ে খেলেছেন ২৩২ ওয়ানডে। এরমধ্যে রেকর্ড ১৫৫ ম্যাচে করেছেন অধিনায়কত্ব। এ ছাড়াও ব্যাট হাতে ওয়ানডে ফরম্যাটে আছেন ৭৮০৫ রান। যা নারী ক্রিকেটারদের মধ্যে সর্বোচ্চ।

এছাড়াও ওয়ানডেতে টানা ৭ ম্যাচে ফিফটির রেকর্ড আছে মিতালির। এ ছাড়াও নারী আন্তর্জাতিক ক্রিকেটে রেকর্ড ৬৪টি ফিফটির মালিকও তিনি। করেছেন ৭টি শতকও। ক্রিকেট থেকে অবসরের সময়েও নারী ওয়ানডের র‍্যাঙ্কিংয়ে সাতে অবস্থান করছিলেন এই ভারতীয় ক্রিকেটার।

নারী টি-টোয়েন্টিতে ৮৯ ম্যাচে ২৩৬৪ রান করেছিলেন মিতালি। কোনো শতক না থাকলেও ১৭টি ফিফটি পেয়েছিলেন এই ফরম্যাটে। ক্যারিয়ার সর্বোচ্চ ছিল অপরাজিত ৯৭ রানের।

২০১৫ সালে ভারতের সর্বোচ্চ পুরস্কারখ্যাত পদ্মশ্রী ভূষিত হয়েছেন মিতালি। এ ছাড়াও ক্রিকেটে অসাধারণ অবদান রাখার দরুণ ২০২১ সালে মেজর ধ্যান চাঁদ খেল রত্ন অ্যাওয়ার্ড জিতেছিলেন তিনি। তার আগে বিরাট কোহলি ও রোহিত শর্মা জিতেছিলেন এই পুরস্কার।