শুক্রবার ভোটার তালিকা হালনাগাদ উদ্বোধন

প্রকাশিত: ৮:০৬ অপরাহ্ণ , মে ১৯, ২০২২

বাড়ি বাড়ি গিয়ে ভোটার তালিকা হালনাগাদ কার্যক্রম শুরু হচ্ছে শুক্রবার (২০ মে)।আগামী ২০ নবেম্বর পর্যন্ত যা ধারাবাহিকভাবে চলবে।

নির্বাচন কমিশনের (ইসি) যুগ্ম সচিব এসএম আসাদুজ্জামান জানান, শুক্রবার সকাল ১০টায় সাভার উপজেলা পরিষদ মিলনায়তনে এ কার্যক্রম উদ্বোধন করবেন প্রধান নির্বাচন কমিশনার (সিইসি) কাজী হাবিবুল আউয়াল।

একইদিন সকাল সাড়ে ১০টায় খুলনা শিল্পকলা একাডেমি অডিটোরিয়ামে এ কার্যক্রম উদ্বোধন করবেন নির্বাচন কমিশনার বিগ্রেডিয়ার জেনারেল (অব.) আহসান হাবিব খান।

বিকেল সাড়ে ৩টায় নির্বাচন কমিশনার বেগম রাশিদা সুলতানা সিরাজগঞ্জ জেলা প্রশাসক সম্মেলন কক্ষে ভোটার তালিকার উদ্বোধন কর্মসূচিতে অংশ নেবেন।

নির্বাচন কমিশনার মোহাম্মদ আলমগীর সকাল সাড়ে ১০টায় থাকবেন মানিকগঞ্জ জেলা প্রশাসকের সম্মেলন কক্ষে।

এছাড়া নির্বাচন কমিশনার আনিছুর রহমান শরীয়তপুর জেলা প্রশাসকের কার্যালয়ে সকাল ১০টায় এ কার্যক্রম উদ্বোধন করবেন।

প্রথম দফায় ১৪০ উপজেলায় এ কার্যক্রম চলবে ৯ জুলাই পর্যন্ত। এরপর তিন ধাপে অন্য উপজেলাগুলোয় এ কার্যক্রম হাতে নেওয়া হবে।

গতবারের মতো এবারও তিন বছরের তথ্য একসঙ্গে নেবে ইসি। এক্ষেত্রে ২০০৭ সালের ১ জানুয়ারি বা তার আগে যাদের জন্ম, তাদের তথ্য নেওয়া হবে।

এবারের হালানাগাদে ভোটার বৃদ্ধির হার ধরা হয়েছে ৭ দশমিক ৫ শতাংশ। অর্থাৎ ৮৪ লাখ ৯৬ হাজার ৫২৬ জন ব্যক্তিকে হালনাগাদের অন্তর্ভূক্ত করার লক্ষ্য নিয়ে কার্যক্রম হাতে নিয়েছে সংস্থাটি।

যে কাগজ-পত্র জমা দিতে হবে:

নিবন্ধনের লক্ষ্যে সংশ্লিষ্ট ব্যক্তির পূরণ করা নিবন্ধন ফরম-২ এর সঙ্গে অনলাইন জন্ম সনদ (প্রযোজ্য ক্ষেত্রে) অথবা এসএসসি বা সমমান পরীক্ষা বা যেকোনো পাবলিক পরীক্ষা পাশের সনদের ফটোকপি নেওয়া হবে।

এছাড়াও অন্য কাগজপত্র যেমন-নাগরিক সনদ, প্রত্যয়নপত্র/বাড়ি ভাড়া/হোল্ডিং ট্যাক্স/ যেকোনো ইউটিলিটি বিল পরিশোধের রশিদের কপি জমা দিয়ে নিবন্ধন সম্পন্ন করতে হবে সংশ্লিষ্ট ব্যক্তিকে।

ভোটার তালিকা আইন, ২০০৯ এর ধারা ৩(কক) এ নামের সংজ্ঞায় শিক্ষা সনদসমূহের পাশাপাশি জন্ম ও মৃত্যু নিবন্ধন আইন, ২০০৪ এর অধীন নিবন্ধিত নাম নিবন্ধনের ক্ষেত্রে প্রয়োজ্য হবে। বর্তমানে ইসির সার্ভারে ১১ কোটি ৩২ লাখ ভোটারের তথ্য রয়েছে।