ভাড়া নির্ধারণ না হওয়ায় আগাম টিকিট বিক্রি বন্ধ

প্রকাশিত: ৩:৫৫ অপরাহ্ণ , জানুয়ারি ১১, ২০২২
ফাইল ছবি

চলমান করোনা ভাইরাসের সংক্রমণ রোধে সরকারি প্রজ্ঞাপন মোতাবেক আগামী বৃহস্পতিবার (১৩ জানুয়ারি) থেকে অর্ধেক আসন ফাঁকা রেখে চলবে বাস-লঞ্চ-ট্রেন। কিন্তু এখনও ভাড়া নির্ধারিত না হওয়ায় আগাম টিকেট বিক্রি বন্ধ রেখেছে দূরপাল্লার সব গণপরিবহন।

মঙ্গলবার (১১ জানুয়ারি) সকাল থেকে রাজধানীর সায়েদাবাদ, গাবতলী ও মহাখালী টার্মিনাল ঘুরে দেখা গেছে, আগাম টিকেট বিক্রি করা হচ্ছে না কোথাও।

কাউন্টারে থাকা কর্তৃপক্ষ বলছেন, সরকার এবং মালিকপক্ষকে এখনও ভাড়া বৃদ্ধির বিষয়ে কোনও নির্দেশনা আসেনি। তাই আগাম টিকেট বিক্রি বন্ধ রয়েছে।

এদিকে যাত্রীদের অভিযোগ, তেলের দাম বৃদ্ধির পর বাড়তি ভাড়ার ধকল এখনও কাটিয়ে উঠতে পারেনি মানুষ। তার ওপর এখন আবার এক আসন ফাঁকা রাখার কথা বলে ভাড়া বৃদ্ধি করা হলেও, বেশিরভাগ পরিবহনেই তা মানা হচ্ছে না।

এমন অবস্থায় নতুন করে এমন নির্দেশনা আসলে, সেটি অসহনীয় পর্যায়ে চলে যাবে বলে দাবি যাত্রীদের।

একইসঙ্গে আসন ফাঁকা নয়, মাস্ক পরা বাধ্যতামূলক করতে সরকারের কড়াকড়ি আরোপের দাবি জানিয়েছেন যাত্রীরা।

সম্প্রতি আবারও বাড়তে থাকা করোনা ভাইরাসের সংক্রমণ নিয়ন্ত্রণে সোমবার (১০ জানুয়ারি) ১১ দফা বিধিনিষেধ আরোপ করে প্রজ্ঞাপন জারি করেছে সরকার।

যে প্রজ্ঞাপনে বলা হয়- ট্রেন, বাস এবং লঞ্চে আসন সংখ্যার অর্ধেক সংখ্যক যাত্রী যাতায়াত করতে পারবেন। সংশ্লিষ্ট কর্তৃপক্ষ এ বিষয়ে কার্যকারিতার তারিখসহ আলাদাভাবে সুনির্দিষ্ট নির্দেশনা জারি করবেন।

এছাড়াও সব যানবাহনের চালক ও সহকারীদের আবশ্যিকভাবে কোভিড-১৯ টিকা সনদধারী হতে হবে বলেও প্রজ্ঞাপনে উল্লেখ করা হয়।

Loading