মোবাইল ছিনতাইকে কেন্দ্র করে কিশোর ছুরিকাহত

প্রকাশিত: ৯:১০ পূর্বাহ্ণ , নভেম্বর ২৭, ২০২১

যশোরের বেনাপোলে মোবাইল ছিনতাইকে কেন্দ্র করে প্রকাশ্যে নুরনবী (২২) নামে এক কিশোরকে ছুরিকাহত করেছে মাদকাসক্ত দুই ভাই। কয়েক দিন আগে জামিন নিয়ে জেলখানা থেকে বের হয়ে এ ঘটনা ঘটায় মাদকাসক্ত।

শুক্রবার দুপুরে বেনাপোলের দিঘীরপাড় এলাকায় এ ঘটনা ঘটে। নুরনবী শার্শা উপজেলার পান্তাপাড়া গ্রামের আজগার আলীর ছেলে।

ছুরিকাহত নুরনবী বলেন, বেনাপোল পোর্ট থানার নামাজগ্রামের আজিবর রহমানের মাদকাসক্ত দুই ছেলে ইমন এবং ইমরান তাকে ছুরিকাহত করে। তারা ২ দিন আগে আমার মোবাইল ছিনতাই করে ইয়াবা খেয়েছে। মোবাইল ফেরত চাইলে মীমাংসার কথা বলে এনে আমাকে ছুরি মেলে পালিয়ে যায়।

পরে স্থানীয় লোকজন উদ্ধার করে রজনী ক্লিনিকে নিয়ে চিকিৎসা দেন।

এ বিষয়ে আজিবরের ছেলে ইমন বলেন, আমি ঘটনাস্থলে ছিলাম কিন্তু আমি তাকে আঘাত করিনি। এ কাজ করেছে আমার ভাই ইমরান। নুরনবী আমার মোবাইল ছিনতাই করে নিলে এ ঘটনা ঘটে। ইমরান কয়েকদিন আগে অপর এক মামলায় জামিন নিয়ে জেলখানা থেকে বাড়ি এসে এ ঘটনা ঘটায়।

এদিকে আহত নুরনবীর নামেও থানায় মামলা থাকায়, সে পুলিশ আসার আগে পালিয়েছে। ছুরিকাহত ঘটনার পর সন্ত্রাসী ইমনের ইয়াবা সেবনের ছবি ভাইরাল হয়।

বেনাপোল স্বেচ্ছাসেবক লীগের সভাপতি জুলফিকার আলী মন্টু বলেন, প্রকাশ্যে আজিবরের দুই সন্ত্রাসী ছেলে এঘটনা ঘটিয়েছে। তাদের দুই ভাইয়ের নামে থানায় একাধিক অভিযোগ রয়েছে।

এ ব্যাপারে আজিবর রহমানকে ফোন করলে তিনি বলেন, ‘আমি এ বিষয় সম্পর্কে কিছু জানি না, আমি এখন নির্বাচনী প্রচারণার কাজে ব্যস্ত আছি।’ আজিবর বর্তমান মেয়রের সমর্থক ও কর্মী।

বেনাপোল পোর্ট থানার ওসি মামুন খান বলেন, ঘটনাটি আমি শুনেছি। তাৎক্ষণিক এসআই রিয়েলসহ কয়েকজন ঘটনাস্থল পরিদর্শন করেছেন। তবে আমরা এখনও কোন অভিযোগ পায়নি। অভিযোগ পেলে প্রয়োজনীয় ব্যবস্থা নেয়া হবে।