মাননীয় প্রধানমন্ত্রীকে নিয়ে শিবির কর্মী কুরুচিপূর্ণ মন্তব্যের প্রতিবাদে সাংবাদিক ও মসজিদের সভাপতি লাঞ্চিত।

প্রকাশিত: ৫:১৪ অপরাহ্ণ , এপ্রিল ১৭, ২০২১

নাটোরের বড়াইগ্রাম থানার জালোড়া গ্রামের কেন্দ্রীয় মজিদের পাশে সাবেক ইউপি সদস্যের আম বাগানে গত- ১৫ এপ্রিল বিশ-ত্রিশ জন মানুষের সামনে মাননীয় প্রধানমন্ত্রীকে নিয়ে শিবিরের কর্মী মোঃ শাহাবুদ্দিন (২২) পিতা মোঃ শামসু মোল্লা (৪০)। তিনি বলেন ভারতের প্রধানমন্ত্রী নরেন্দ্র মোদিকে বাংলাদেশে নিয়ে আসছে হাসিনা বাসর করার জন্য। হাসিনা বাংলাদেশটাকে ভারতের কাছে বিক্রয় করে দিতে চায়। শেখ হাসিনা নাস্তিক, বাংলাদেশটাকে নাস্তিকের দেশ বানাতে চায় হাসিনা, হাসিনার জন্মের ঠিক নাই। এমন আরো অনেক কুরুচিপূর্ণ মন্তব্য করেন। সেখানে উপস্থিত ছিলেন বড়াইগ্রাম থানার ৪নং ইউনিয়নের ৩নং ওয়ার্ড ছাত্রলীগের সভাপতি, বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিবুর রহমান বিজ্ঞান ও প্রযুক্তি বিশ্ববিদ্যালয়ের ছাত্র, বশেমুরপ্রবির ছাত্রলীগের সদস্য এবং www.news71online.com or www.Voiceofinsaf.com এর বিশেষ প্রতিনিধি /সাংবাদিক আব্দুস সালাম। তিনি প্রতিবাদ করলে তাকে পায়ের জুতা দিয়ে মারতে আসে এবং শিবিরের নেতাকর্মীদের বৈশিষ্ট্য উল্লেখ করে হুমকি প্রদান করে। তিনি আরো বলেন রাজিবের মতোই ছাত্রলীগকে করা উচিত (উল্লেখো যে তার হাতে গত ২০১৬ সালের ডিসেম্বর মাসে রাজিবের পিঠে খুর দিয়ে আঘাত করে প্রায় ৭২ টা রাজশাহী মেডিকেল কলেজ হাসপাতাল থেকে সেলাই করা হয়েছিলো)। এছাড়া যে মসজিদের ইমাম ও মুয়াজ্জিনকে তার পছন্দ হয় না তাদের অপমান করা তার কাছে ছেলে খেলার মতো। মসজিদ কমিটির কাছে অভিযোগ আছে।

এর আগে চলমান লকডাউনের কারণে মজিদের সভাপতি ও সাবেক ইউপি সদস্য মোঃ আবুল হোসেন আরবি শিক্ষা বন্ধ ঘোষণা করার কারণে শিবির কর্মী মোঃ শাহাবুদ্দিন বলেন দেশের সরকারের মতো গ্রামের মসজিদ কমিটিও নাস্তিক হয়ছে। আরবি শিক্ষা পড়া হচ্ছে দেখতে পাচ্ছে না। মেম্বার/ কমিটিকে চিঠি দিয়ে জানাইতে হবে নাকি এমন রসিকতা করেন। এদেরকে আমার গালে মুখে চরাতে ইচ্ছা করে।
পরের দিন কথা গুলো প্রকাশ হলে গ্রামের কেন্দ্রীয় মসজিদ কমিটি ও গ্রামের মানুষ তাকে জিজ্ঞেসা করলে তিনি মসজিদ কমিটি ও সাবেক ইউপি সদস্য মোঃ আবুল হোসেনকে গালে মুখে চরানোর কথা অশিকার করে মাননীয় প্রধানমন্ত্রী ও সাংবাদিকের উল্লেখিত কথা গুলো শিকার করেন। এছাড়াও news71 ঘটনা স্থলের মানুষের কাছে জানতে চাইলে নাম প্রকাশ করতে অপারোগতা জানিয়ে তিনি বলেন উল্লেখিত কথা গুলো সত্যি। আরো একজন বলেন প্রধানমন্ত্রী নিয়ে বলেছেন এটা আমি বলতে পারবো।