নারায়ণগঞ্জে লঞ্চ দুর্ঘটনার জন্য দায়ী জাহাজ আটক

প্রকাশিত: ১:০০ অপরাহ্ণ , এপ্রিল ৯, ২০২১

নারায়ণগঞ্জ জেলার শীতলক্ষ্যা নদীর কয়লাঘাটে লঞ্চ দুর্ঘটনার জন্য দায়ী কর্গো জাহাজ এস.কে.এল-৩ জাহাজটি মুন্সীগঞ্জ থেকে আটক করেছে কোস্টগার্ডের নারায়ণগঞ্জের পাগলা স্টেশন ইউনিট।

নারায়ণগঞ্জ নৌ-পুলিশের ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা (ওসি) শহীদুল ইসলাম জানান, এমভি সাবিত আল হাসান লঞ্চকে ধাক্কা দেয়া সেই কর্গো জাহাজ এস কে এল-৩ কে মুন্সিগঞ্জের গজারিয়া থেকে আটক করেছে কোস্টগার্ডের পাগলা ইউনিট। এ সময় ১৪ জন ব্যাক্তিকেও আটক করা হয়েছে।

তিনি জানান, আটকের পর জাহাজটিকে নৌ-পুলিশের কাছে হন্তান্তর করা হয়েছে। এটি নারায়ণগঞ্জে নিয়ে আসছি। নারায়ণগঞ্জে আনার পর এ জাহাজের ব্যাপারে আইন অনুযায়ী ব্যবস্থা নেয়া হবে। তবে আটক ১৪ ব্যাক্তি জাহাজের স্টাফ কিনা এবং এদের মধ্যে ঘটনার সময় থাকা জাহাজের মাস্টার, সুকানি রয়েছে কিনা তা তারা খতিয়ে দেখে আইনগত ব্যবস্থা নিবেন বলে জানিয়েছেন।

এ দুর্ঘটনার ব্যাপারে বিআইডব্লিউটিএ’র দায়ের করা মামলা তদন্ত করছে নৌ-পুলিশ। সে মামলায় এ জাহাজটিকে আটক দেখানো হবে বলে জানিয়েছে নৌ-পুলিশ।

গত ৪ এপ্রিল সন্ধ্যা সাড়ে ৬টায় নারায়ণগঞ্জ কেন্দ্রীয় লঞ্চ টার্মিনাল থেকে যাত্রী নিয়ে মুন্সীগঞ্জে যাচ্ছিল এমভি সাবিত আল হাসান লঞ্চটি। নারায়ণগঞ্জ টার্মিনাল ছাড়ার কিছুক্ষণের মধ্যে এস.কে.এল-৩ নামের একটি কর্গো জাহাজের ধাক্কায় ডুবে যায় লঞ্চটি। এসময় লঞ্চে থাকা যাত্রীদের একটি অংশ সাঁতরিয়ে তীরে উঠতে পারলেও নিচতলার যাত্রীরা পানিতে তলিয়ে যায়। এই ঘটনায় ৩৪ জনের মৃত্যু হয়েছে।
সূত্র : বাসস