বিসিবির ইতিহাসে সেরা সভাপতি হব

প্রকাশিত: ২:২১ অপরাহ্ণ , মার্চ ২১, ২০২১

বিশ্বসেরা অলরাউন্ডার সাকিব আল হাসান জানিয়েছেন, তার চেয়ে ভালো বিসিবি প্রেসিডেন্ট কারও পক্ষে হওয়া সম্ভব না। এমনকি, বিসিবির ইতিহাসের সেরা সভাপতি হবো- বলেও দৃঢ় বক্তব্য দিয়েছেন সাকিব। শনিবার (২০ মার্চ) রাতে যুক্তরাষ্ট্র থেকে এক ফেসবুক লাইভে তিনি এসব কথা জানান।

আলোচনাটা অবশ্য সব সময়ই ছিল মাশরাফিকে নিয়েই। খেলা ছাড়ার পর বিসিবিতে কোনও দায়িত্বে আসবেন ম্যাশ- এমনটাই ধারণা সবার। সমর্থকদের আশা ছিল নড়াইল এক্সপ্রেসকে হয়তো কখনও দেখা যাবে বিসিবির প্রেসিডেন্টের চেয়ারে। যদিও, খোদ মাশরাফি কখনওই শরিক হননি এ আলোচনার।

তবে, এবার নিজের ইচ্ছেটা জোরালোভাবেই জানালেন সাকিব আল হাসান। মার্কিন মুলুক থেকে ভার্চুয়াল আলোচনায় যোগ দিয়ে দর্শকদের করা এক প্রশ্নের উত্তর দিয়েছেন সরাসরি। জানিয়েছেন, মনের কোণে ইচ্ছে আছে বিসিবির ওই ভবনে ঢোকার। তবে, সেটা শুধুই একজন সাধারণ কর্মকর্তা হিসেবে নয়। হতে চান কর্তাদের কর্তা। শুধু তাই নয়, দায়িত্বটা নিতে কতটা ইচ্ছুক তিনি, সেটা জানিয়েছেন অকপটে। বলেছেন, তিনি যদি প্রেসিডেন্ট হতে পারেন, তাহলে সেটা হবে বাংলাদেশের ক্রিকেটের জন্য সেরা ঘটনা।

এমনকি তার মতো ভালো বিসিবি প্রেসিডেন্ট কারও পক্ষেই হওয়া সম্ভব না উল্লেখ করে সাকিব বলেন, ‘আমার কাছে মনে হয়, কখনও যদি বিসিবির সভাপতির মতো পদে যেতে পারি তাহলে আমি যে কাজ করব ওটা বাংলাদেশের আর কেউ করতে পারবে না। অবশ্যই, ক্রিকেটে থাকলে আর বিসিবি সভাপতি হওয়ার সুযোগ আসলে আমি হতে চাইব। আমি জানি, আমি বিসিবির ইতিহাসের সেরা সভাপতি হবো। খুব ভালোভাবে বিশ্বাস করি, আমার পক্ষে এটা সম্ভব।’

আলোচনার এক পর্যায়ে প্রেসিডেন্ট হলে কিভাবে ক্রিকেটকে বদলে দিতে চান তা নিয়েও কিছু ধারণা দিয়েছেন সাকিব। আইপিএল এবং অন্যান্য উন্নত ক্রিকেট রাষ্ট্রের ঘরোয়া আসরগুলো নিয়ে মুগ্ধতা ছিল সাকিবের কণ্ঠে।

সাকিব বর্তমানে পরিবারের সঙ্গেই অবস্থান করছেন যুক্তরাষ্ট্রের উইসকনসিনের মেডিসন শহরে। সন্তান জন্মের সময় স্ত্রীর পাশে থাকতেই বাংলাদেশ দলের সঙ্গে নিউজিল্যান্ড সফরে যাননি তিনি। সেইসঙ্গে অক্টোবরে টী-টোয়েন্টি বিশ্বকাপের জন্য প্রস্তুতিকল্পে আইপিএল খেলেই নিজেকে ঝালিয়ে নিবেন বলেও জানান গত ওয়ানডে বিশ্বকাপের অন্যতম সেরা এই রান সংগ্রাহক।