গণমাধ্যমে ডিজিটাল নিরাপত্তা আইন সংশোধন

আমার বক্তব্যের ভুল ব্যাখ্যা দেওয়া হয়েছে

প্রকাশিত: ৫:১২ অপরাহ্ণ , মার্চ ৫, ২০২১

সম্প্রতি ডিজিটাল নিরাপত্তা আইন বাতিলের দাবিতে দেশের বিভিন্নস্থানে আন্দোলন চলে আসছিলো। এ নিয়ে উত্তেজনাকর পরিস্থিতির সৃষ্টি হয়। পুলিশের সঙ্গে আন্দোলনকারীদের সংঘর্ষ, ধাওয়া পাল্টাধাওয়া হয়। এ ঘটনার সূত্র ধরে মামলা ও আটকের ঘটনাও ঘটে। এমন প্রেক্ষাপটে এ বিষয়ে মুখ খুলেছেন আইন, বিচার ও সংসদ বিষয়ক মন্ত্রী অ্যাডভোকেট আনিসুল হক।

তিনি বলেছেন, ইতোমধ্যে বিভিন্ন গণমাধ্যমে ডিজিটাল নিরাপত্তা আইন সংশোধন বিষয়ে যে সংবাদ প্রকাশ করা হয়েছে তা ভুল। কিছুদিনের মধ্যে ডিজিটাল নিরাপত্তা আইন সংশোধন করা হবে আমি এমন কোনো কথা বলিনি। এ বিষেয়ে আমি যে কথা বলেছি, তার ব্যাখ্যা ভুলভাবে উপস্থাপন করা হয়েছে।

আজ শুক্রবার (০৫ ফেব্রুয়ারি) সকাল সাড়ে ১০টার দিকে ব্রাহ্মণবাড়িয়ার আখাউড়া রেলওয়ে জংশনে সাংবাদিকদের প্রশ্নের জবাবে তিনি এ কথা জানান।

এসময় নিজ এলাকার জনগণকে করোনার টিকা নেওয়ার আহ্বান জানিয়ে মন্ত্রী বলেন, শেখ হাসিনার দূরদর্শিতার কারণেই তুলনামূলক মৃতের সংখ্যা কম হয়েছে। যদিও একটি মৃত্যুও আমাদের কাম্য নয়।

পরে মন্ত্রী স্টেশনের বাইরে স্থানীয়দের উদ্দেশে বক্তব্য দেন। এ সময় তিনি বলেন, আপনারা সবাই যদি শেখ হাসিনার সঙ্গে থাকেন, তাহলে বাংলাদেশের ভবিষ্যৎ পাল্টে যাবে। আপনাদের সাহসে পদ্মা সেতু নিজেদের টাকায় করা হয়েছে। বাংলাদেশের অর্থনৈতিক মানচিত্র বদলে গেছে। বাংলাদেশ এখন সারা বিশ্বে উন্নয়নের রোল মডেল হিসেবে পরিচিত। সবই সম্ভব হয়েছে প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনার নেতৃত্বের কারণে। আমরা ২০৪১ সালে বাংলাদেশকে সারা বিশ্বে একটি উন্নত দেশ হিসেবে পরিচিত করে তুলব।

ডিজিটাল নিরাপত্তা আইন সংশোধনের কোন পরিকল্পনা সরকারের আছে কিনা সাংবাদিকদের এমন প্রশ্নের জবাবে আইনমন্ত্রী বলেন, কিছুদিনের মধ্যে তা দেখতে পাবেন। মন্ত্রী আরও বলেন, বাংলাদেশের অর্থনৈতিক মানচিত্র বদলে গেছে। বাংলাদেশের মানুষের টাকায় শেখ হাসিনা পদ্মা সেতু নির্মাণ করেছেন। কারও কাছ থেকে ঋণ নিতে হয় নাই।

আইনমন্ত্রী আরও বলেন, করোনা মহামারিতে সারা বিশ্বে ২৫ লাখ লোক মারা গেছে। আমরা আর কাউকে হারাতে চাই না। করোনার বিরুদ্ধে আমাদের যে যুদ্ধ, সে যুদ্ধে আমরা জয়ী হতে চাই। এজন্য তিনি সকলকে দ্রুত করোনা ভাইরাসের ভ্যাকসিন নেওয়ার পরামর্শ দেন।

ব্রাহ্মণবাড়িয়ার জেলা প্রশাসক হায়াত-উদ-দৌলা খান, পুলিশ সুপার মোহাম্মদ আনিসুর রহমান, অতিরিক্ত পুলিশ সুপার (সদর দপ্তর) মো. আবু সাঈদ, আখাউড়া পৌরসভার মেয়র মো. তাকজিল খলিফা কাজল, উপজেলা নির্বাহী কর্মকর্তা (ইউএনও) মোহাম্মদ নূর-এ আলমসহ অনেকে এ সময় উপস্থিত ছিলেন। এদিকে, করোনা পরিস্থিতির কারণে প্রায় ১ বছর পর এদিন আখাউড়ায় এলেন মন্ত্রী। তিনি এখানে পৌঁছালে শতাধিক সংগঠন ও ব্যক্তি তাকে ফুল দিয়ে স্বাগত জানান। ##আরটিভি