আত্রাই আ.লীগের সম্মেলন হোক ইলেকশনে, দাবি তৃণমূল নেতাকর্মীদের

প্রকাশিত: ২:৫৮ অপরাহ্ণ , ফেব্রুয়ারি ১৯, ২০২১

মোঃ শিফাত মাহমুদ ফাহিম :

আগামী ২৮ -শে ফেব্রুয়ারি আত্রাই উপজেলা আওয়ামীলীগের তৃ-বার্ষিকী সম্মেলন’কে কেন্দ্র করে তৃণমূল নেতাকর্মীদের মনে বইছে উচ্ছ্বাসের প্রবল ঝড়।এই প্রবল ঝড়ে কে উড়ে যাবে দূর দেশে, আর কে শক্ত হাতে আ.লী খুঁটি ধরে টিকে রবে সেটিই দেখার পালা এবার।

বার বার রাজনৈতিক দল গুলোর ক্ষমতার পরিবর্তন ঘটে। সেই সাথে ঘটে নেতৃত্বের ও পরিবর্তন শুধু পরিবর্তন ঘটে না তৃণমূল নেতাকর্মীদের ভাগ্যের।হোক না এই দল অথবা ঐ দল।

তৃণমূল নেতাকর্মীদের যেনো গাঁধা বানিয়ে রাখেন ক্ষমতা হাতে পাওয়ার পর উপরের ধারক বাহকরা,
তথা বড় নেতা বাবুরা।কেননা যখন মূর্খ আর অযোগ্য ব্যক্তিরা নেতৃত্বের চেয়ারে বসে নেতৃত্ব প্রদান করে তখনই তৃনমূল নেতাকর্মীদের কদর কমে যায়।
তৃণমূল নেতাকর্মীদের গাঁধার জীবন বয়ে বেড়াতে হয় আর এতে সঠিক নেতৃত্বের অভাবে দলের বড় ক্ষতি সাধিত হয়।

তবে এবারের সম্মেলনে ব্যতিক্রম কিছু ঘটবে বলে শুধু আশাবাদী নয়, মনে প্রাণে বিশ্বাসী তৃণমূল আওয়ামীলীগের নেতাকর্মীরা।কারণ নওগাঁ-০৬ আসনের এমপি ইসরাফিল আলম এর মৃত্যুর পর উপ-নিবার্চনের মধ্যে দিয়ে ঘটেছে নেতৃত্বের বড় পরিবর্তন।

সেই দৃষ্টিকোণ থেকে লক্ষ্য করেই হয়তো অনেকেই ধারণা করছে এবার হয়তো মূর্খ আর অযোগ্যদের হাতে নেতৃত্বে যাবেনা, বিগত সময়ের মতো।

তৃণমূল নেতাকর্মীদের দাবি এবার সম্মেলন যেনো সিলেকশনে নয় ভোটের মাধ্যমে হয়।যদি এবারের সম্মেলন ভোটের মাধ্যমে হয় তাহলে তৃণমূল নেতাকর্মীরা তাদের কাঙ্খিত নেতাকে নেতৃত্বের চেয়ারে বসাতে পারবেন বলে জানান অনেকেই।
আর যদি সিলেকশনে হয় তাহলে তারা তাদের কাঙ্ক্ষিত ব্যক্তি তথা নেতাকে নেতৃত্বে চেয়ারে বসতে পারবেন না।

তৃণমূল আওয়ামীলীগের নেতাকর্মীরা বলেন, আমরা নওগাঁ-০৬ আসনের মাননীয় এমপি আলহাজ্ব আনোয়ার হোসেন হেলাল এর সু-দৃষ্টি আকর্ষণ করে বলছি, এবারের সম্মেলন ভোটের মাধ্যমে দিয়ে যোগ্য নেতাকে নেতৃত্বের চেয়ারে বসানোর সুযোগ করে দিবেন আমাদের।