শেখ হাসিনা হত্যাচেষ্টা মামলা : ১০ জঙ্গির মৃত্যুদণ্ড বহাল

প্রকাশিত: ৩:৪১ অপরাহ্ণ , ফেব্রুয়ারি ১৭, ২০২১

২০০০ সালে গোপালগঞ্জের কোটালীপাড়ায় প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনাকে হত্যাচেষ্টা মামলার বিচারিক আদালতে ১০ জঙ্গির মৃত্যুদন্ড হাইকোর্ট বহাল রেখে আজ রায় ঘোষণা করেছেন।

বিচারপতি জাহাঙ্গীর হোসেন ও বিচারপতি মো. বদরুজ্জামান সমন্বয়ে গঠিত একটি হাইকোর্ট ডিভিশন বেঞ্চ চাঞ্চল্যকর মামলাটির ডেথ রেফারেন্স ও আপিলের ওপর আজ রায় ঘোষণা করেন।

ডেপুটি এটর্নি জেনারেল ড. মো. বশির উল্লাহ বাসস-কে এ কথা জানান।

এর আগে গত ১ ফেব্রুয়ারি উভয়পক্ষের শুনানি শেষে এই হাইকোর্ট ডিভিশন বেঞ্চ রায় ঘোষণার জন্য আজ দিন ধার্য করে আদেশ দেন। আদালত বলেছিলেন- এ রায় বাংলায় দেবেন। ভাষা আন্দোলনের এই মাসে আদালত রায়টি বাংলায় দেন।

আদালতে রাষ্ট্রপক্ষে ছিলেন এটর্নি জেনারেল এ এম আমিন উদ্দিন ও ডেপুটি এটর্নি জেনারেল ড. মো. বশির উল্লাহ, সহকারী এটর্নি জেনারেল এ মোহাম্মদ শাহীন মৃধা।

এটর্নি জেনারেল এ এম আমিন উদ্দিন বলেন, প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনাকে হত্যা করে দেশকে নেতৃত্বশুন্য করতে আসামিদের সুদুর-প্রসারী ষড়যন্ত্র প্রমাণিত হয়েছে। ফৌজদারি কার্যবিধি ১৬৪ ধারায় ষড়যন্ত্রের কথা আসামি স্বীকার করেছেন। ডেথ রেফারেন্স গ্রহণ ও আসামিদের আপিল খারিজ করে বিচারিক আদালতের দেয়া হাইকোর্টের মৃত্যুদ-ের রায় বহাল রাখায় সন্তোষ প্রকাশ করেছেন এটর্নি জেনারেল।

এ মামলায় মৃত্যুদ-প্রাপ্তরা হলেন- ওয়াসিম আক্তার ওরফে তারেক ওরফে মারফত আলী, রাশেদ ড্রাইভার ওরফে আবুল কালাম ওরফে রাশেদুজ্জামান ওরফে শিমন খান, ইউসুফ ওরফে মোসাহাব মোড়ল ওরফে আবু মুসা হারুন, শেখ ফরিদ ওরফে মাওলানা শওকত ওসমান, হাফেজ জাহাঙ্গীর আলম বদর, মাওলানা আবু বকর ওরফে হাফেজ সেলিম হাওলাদার, হাফেজ মাওলানা ইয়াহিয়া, মুফতি শফিকুর রহমান, মুফতি আব্দুল হাই ও মাওলানা আব্দুর রউফ ওরফে আব্দুর রাজ্জাক ওরফে ওমর।
সূত্র : বাসস