অন্যান্য দেশ থেকেও ভ্যাকসিন সংগ্রহ করা হবে

প্রকাশিত: ৪:৪৭ অপরাহ্ণ , ফেব্রুয়ারি ১৪, ২০২১

মহামারি করোনা ভাইরাসের টিকার বিষয়ে সন্তোষ প্রকাশ করেছেন প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা। তিনি বলেন, প্রথম দিকে দ্বিধা-দ্বন্দ্বে থাকলেও সাধারণ মানুষ আগ্রহ ও উৎসাহের মধ্য দিয়ে করোনার টিকা নিচ্ছে। প্রয়োজনে অন্যান্য দেশ থেকেও ভ্যাকসিন সংগ্রহ করা হবে।

আজ রোববার (১৪ ফেব্রুয়ারি) কুমুদিনি ট্রাস্টের কুমুদিনি ইন্টারন্যাশনাল ইনস্টিটিউট অব মেডিকেল সায়েন্স অ্যান্ড ক্যান্সার রিসার্চের ভিত্তিপ্রস্তর স্থাপন অনুষ্ঠানে এ বিষয়ে সন্তোষ প্রকাশ করেন তিনি। নারায়ণগঞ্জে আয়োজিত এই অনুষ্ঠানে গণভবন থেকে ভিডিও কনফারেন্সের মাধ্যমে যোগ দেন প্রধানমন্ত্রী।

ভিডিও কনফারেন্সে প্রধানমন্ত্রী বলেন, টিকা নেওয়ার ব্যাপারে অনেকের মধ্যেই অনেক দ্বিধা-দ্বন্দ্ব ছিল। তবে সাহসী ভূমিকা রেখেছেন আমাদের কুমুদিনি হাসপাতালের নার্স রুনু বেরোনিকা কস্তা। তাকে আমার আন্তরিক অভিনন্দন জানাই। আর এখন আল্লাহর রহমতে আমাদের আর কোনো সমস্যা নেই। সবাই এখন খুব উৎসাহ ও আগ্রহের মধ্য দিয়ে টিকা নিতে আসছে। করোনার ভ্যাকসিন নেওয়ার পরও স্বাস্থ্যবিধি মেনে চলতে হবে।

কয়েকযুগ ধরে বাংলাদেশের চিকিৎসা সেবায় বিশেষ করে আর্তমানবতার সেবায় অবদান রাখায় কুমুদিনি ট্রাস্টকে ধন্যবাদ দেন প্রধানমন্ত্রী। করোনা ভাইরাস মোকাবেলায় বাংলাদেশ সফল উল্লেখ করে শেখ হাসিনা সংশ্লিষ্ট সবাইকে ধন্যবাদ দেন। সবাইকে করোনার টিকা গ্রহণ করে দেশকে করোনামুক্ত করার আহ্বানও জানান প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা।