‘দুর্যোগ মোকাবেলায় আড়াই হাজার কোটি টাকা ব্যয়’

প্রকাশিত: ৮:৫৯ অপরাহ্ণ , ফেব্রুয়ারি ১৩, ২০২১

দুর্যোগ ব্যবস্থাপনা ও ত্রাণ প্রতিমন্ত্রী ডা: মো: এনামুর রহমান বলেছেন, দুর্যোগ মোকাবেলায় সক্ষমতা বৃদ্ধির লক্ষ্যে আড়াই হাজার কোটি টাকার উদ্ধার সামগ্রী ও যন্ত্রপাতি ক্রয় করা হবে। একই সাথে চারটি হেলিকপ্টার এবং চারটি হোভারক্রাফটও ক্রয় করা হবে।

তিনি আজ রাজধানীর মহাখালীর কড়াইল বস্তিতে ‘জাতীয় দুর্যোগ প্রস্তুতি দিবস’ উপলক্ষে আয়োজিত ভূমিকম্প এবং অগ্নিকান্ডে করণীয় বিষয়ক সচেতনতামূলক মহড়ায় বক্তৃতা করছিলেন।

ত্রাণ প্রতিমন্ত্রী বলেন, যেকোনো দুর্যোগে উদ্ধার কার্যক্রম চালানোর ক্ষেত্রে উন্নত দেশের মতো সক্ষমতা অর্জনে কাজ করছে সরকার।
তিনি বলেন, দুর্যোগ মোকাবেলায় বিভাগীয় এবং জেলা শহরগুলোর জন্য ৬৫ ও ৫৫ মিটার উচ্চতায় উদ্ধার কার্যক্রম চালানোর জন্য ৬০টি উন্নত মানের লেডার ক্রয় করা হবে।

প্রতিমন্ত্রী বলেন, পূর্বপ্রস্তুতি থাকলে যেকোনো দুর্যোগ মোকাবেলা অনেকটাই সহজ হয়। গত বছর শহীদ সোহরাওয়ার্দী হাসপাতালে অগ্নিকান্ড হলেও বড় ধরনের কোন ক্ষয়ক্ষতি হয়নি। কারণ সেখানে অগ্নিকান্ডের এক মাস আগে সচেতনতামূলক মহড়ার আয়োজন করা হয়েছিল। দেশের মানুষজনকে অগ্নিকান্ডসহ বিভিন্ন ধরনের দুর্যোগ মোকাবেলায় সচেতন করার লক্ষ্যে সারাদেশে এ ধরনের অনুষ্ঠানের আয়োজন করা হচ্ছে।

প্রতিমন্ত্রী আরো বলেন, বস্তিবাসীর জীবনমান উন্নয়নে সরকার কাজ করছে। বস্তিগুলোর টিনের ও অন্যান্য অস্বাস্থ্যকর ঘর ভেঙ্গে তার পরিবর্তে সেখানে মাল্টিস্টোরেড ভবন নির্মাণের লক্ষ্যে সরকার কার্যক্রম শুরু করেছে। তিনি বলেন, প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনার নেতৃত্বে আমরা এখন উন্নয়নের ট্রেনে রয়েছি যা যথাসময়ে গন্তব্যে পৌঁছাবে।

এ সময় ঢাকা উত্তর সিটি কর্পোরেশনের মেয়র মো: আতিকুল ইসলাম, দুর্যোগ ব্যবস্থাপনা ও ত্রাণ মন্ত্রণালয়ের সচিব মো: মোহসীন এবং ফায়ার সার্ভিস ও সিভিল ডিফেন্সের মহাপরিচালক ব্রিগেডিয়ার জেনারেল মো: সাজ্জাদ হোসাইন উপস্থিত ছিলেন।