টিকাদান কর্মসূচি বাস্তবায়নে রেড ক্রিসেন্টের ১৫ হাজার স্বেচ্ছাসেবক

প্রকাশিত: ৯:০১ অপরাহ্ণ , জানুয়ারি ২৬, ২০২১

করোনা ভাইরাস (কোভিড-১৯) মোকাবেলার অংশ হিসেবে বাংলাদেশ সরকারের কোভিড-১৯ টিকাদান কার্যক্রম ২০২১ বাস্তবায়নে রাজধানীসহ সারাদেশে সরকারের সাথে সম্মিলিতভাবে কাজ করছে বাংলাদেশ রেড ক্রিসেন্ট সোসাইটি। সোসাইটির প্রায় ১৫ হাজার প্রশিক্ষিত স্বেচ্ছাসেবক এই কার্যক্রমে সরাসরি অংশগ্রহণ করছে। 

ইতোমধ্যে, কোভিড-১৯ টিকা কার্যক্রমে অংশ নেওয়া স্বেচ্ছাসেবকদেরকে ইন্টারন্যাশনাল ফেডারেশন অফ রেড ক্রস এন্ড রেড ক্রিসেন্ট সোসাইটিজ (আইএফআরসি) এর সহযোগিতায় সরকার প্রদত্ত স্বেচ্ছাসেবক গাইডলাইন অনুযায়ী প্রশিক্ষণ প্রদান করা হয়েছে।

উল্লেখ্য, সরকারের স্বাস্থ্য অধিদপ্তর থেকে সকল জেলার সিভিল সার্জন ও সিটি কর্পোরেশনের প্রধান স্বাস্থ্য কর্মকর্তাসহ সংশ্লিষ্ট সকলকে টিকাদান কর্মসূচিতে বাংলাদেশ রেড ক্রিসেন্ট সোসাইটির স্বেচ্ছাসেবকদের অন্তর্ভূক্তি করণের জন্য অফিসিয়াল চিঠি পাঠানো হয়েছে।

রেড ক্রিসেন্ট সোসাইটি জানায়, রেড ক্রিসেন্টের প্রশিক্ষিত এসব স্বেচ্ছাসেবকরা সরকারের কোভিড-১৯ টিকাদান কর্মসূচি সফল করার লক্ষ্যে রাজধানী ঢাকাসহ দেশের সকল জেলা, উপজেলাসহ তৃণমূল পর্যায়ে কার্যক্রমটি বাস্তবায়নে স্থানীয় প্রশাসনকে সহযোগিতা করবে।

রাজধানীর কুর্মিটোলা জেনারেল হাসপাতালসহ পর্যায়ক্রমে ঢাকার বিভিন্ন হাসপাতালে শুরু হওয়া কোভিড-১৯ টিকাদান কার্যক্রমে সহযোগিতায় প্রথম পর্যায়ে ১৫০ জন রেড ক্রিসেন্ট সোসাইটির স্বেচ্ছাসেবক কাজ শুরু করেছে। এরই ধারাবাহিকতায় আজ মঙ্গলবার বিকাল ৩টায় কর্মিটোলা জেনারেল হাসপাতালে অনুষ্ঠিত মহড়ায় বাংলাদেশ রেড ক্রিসেন্ট সোসাইটির ৫০ জন স্বেচ্ছাসেবক অংশগ্রহণ করে।

বাংলাদেশ রেড ক্রিসেন্ট সোসাইটির যুব ও স্বেচ্ছাসেবক বিভাগের পরিচালক ইমাম জাফর সিকদার বলেন, রাজধানী ঢাকাসহ সারাদেশে সরকারের কোভিড-১৯ এই টিকাদান কার্যক্রম বাস্তবায়নে সহযোগিতার জন্য স্বেচ্ছাসেবকদেরকে প্রস্তুত করা হয়েছে। রেড ক্রিসেন্টের ১৫ হাজার দক্ষ স্বেচ্ছাসেবক এই কর্মসূচি বাস্তবায়নে পর্যায়ক্রমে কাজ করবে।

তিনি আরও জানান, কোভিড-১৯ কার্যক্রমে অংশ নেওয়া স্বেচ্ছাসেবকদের প্রশিক্ষণ কার্যক্রম চলমান রয়েছে। তিনি বলেন, এই টিকাদান কার্যক্রম বাস্তবায়নে সহযোগিতা করার জন্য প্রথম পর্যায়ে ১৫ হাজার স্বেচ্ছাসেবক নিয়োজিত করা হয়েছে। প্রয়োজনীয়তা ও সরকারের চাহিদার প্রেক্ষিতে আগামীতে এই সংখ্যা আরও বাড়তে পারে।

গত ২৪ ও ২৫ জানুয়ারি ২০২১ তারিখে সোসাইটির যুব ও স্বেচ্ছাসেবক বিভাগের উদ্যোগে সোসাইটির জাতীয় সদর দপ্তরস্থ প্রশিক্ষণ কক্ষে কোভিড-১৯ টিকাদান কার্যক্রমে অংশগ্রহণকারী দুটি ব্যাচে ১৫০ জন স্বেচ্ছাসেবককে প্রশিক্ষণ প্রদান করা হয়। প্রথম ব্যাচের প্রশিক্ষণের উদ্বোধনী অনুষ্ঠানে প্রধান অতিথি হিসেবে উপস্থিত ছিলেন বাংলাদেশ রেড ক্রিসেন্ট সোসাইটির মহাসচিব মো: ফিরোজ সালাহ্ উদ্দিন। স্বাস্থ্য অধিদপ্তরের ডিডিএম ডা: মো: মাওলা শেখ, সোসাইটির স্বাস্থ্য বিভাগের পরিচালক ইকরাম এলাহী চৌধুরী, যুব ও স্বেচ্ছাসেবক বিভাগের পরিচালক ইমাম জাফর সিকদার, সোসাইটির ইন্টারন্যাশনাল রিলেশন বিভাগের ইনচার্জ রেজওয়ান নবীনসহ বাংলাদেশ রেড ক্রিসেন্ট সোসাইটি ও আইএফআরসি’র উচ্চ পর্যায়ের কর্মকর্তারা এসময় উপস্থিত ছিলেন।

২য় ব্যাচের সমাপনী অনুষ্ঠানে প্রধান অতিথি হিসেবে উপস্থিত ছিলেন সোসাইটির উপ-মহাসচিব মো: রফিকুল ইসলাম। মি: সঞ্জীব কুমার কাফলে, এক্টিং হেড অব কান্ট্রি অফিস, আইএফআরসি, বাংলাদেশ, মি: আলী আকগুল, অপারেশনস ম্যানেজার, আইএফআরসি, বাংলাদেশ, বাংলাদেশ রেড ক্রিসেন্ট সোসাইটির স্বাস্থ্য বিভাগের পরিচালক ইকরাম এলাহী চৌধুরী, যুব ও স্বেচ্ছাসেবক বিভাগের পরিচালক ইমাম জাফর সিকদার অনুষ্ঠানে অতিথি হিসেবে উপস্থিত ছিলেন।

বাংলাদেশ রেড ক্রিসেন্ট সোসাইটির মহাসচিব মো: ফিরোজ সালাহ্ উদ্দিন বলেন, বাংলাদেশ সরকারের সহযোগী প্রতিষ্ঠান হিসেবে বাংলাদেশ রেড ক্রিসেন্ট সোসাইটি সরকারের কোভিড-১৯ টিকাদান কর্মসূচি বাস্তবায়নে সবধরণের সহযোগিতা প্রদানে প্রস্তুত রয়েছে। সোসাইটির স্বেচ্ছাসেবকদের প্রশিক্ষণ শেষে রাজধানী ঢাকাসহ দেশের জেলা ও উপজেলা পর্যায়ে টিকাদান কার্যক্রম বাস্তবায়নে সহযোগিতা প্রদানের জন্য নিয়োজিত করা হয়েছে।

তিনি বলেন, কোভিড-১৯ টিকাদান কর্মসূচি সফল করতে সরকারের স্বাস্থ্য অধিদপ্তর, স্বাস্থ্য মন্ত্রাণালয় ও অন্যান্য সরকারি দপ্তরের সাথে সমন্বয়ের মাধ্যমে নিরলস কাজ করে যাচ্ছে।