নেত্রকোনার মদনে এক পরিবারে ৪ প্রতিবন্ধী,  কোন ভাতা পাচ্ছে না

প্রকাশিত: ৭:০২ অপরাহ্ণ , জানুয়ারি ২৬, ২০২১

নেত্রকোনার মদন উপজেলা তিয়শ্রী ইউনিয়ের কৃষ্ণপুর গ্রামের দিনমজুর আবুল মিয়া (৫০) র পরিবারে ৪ সন্তান প্রত্যেকেই প্রতিবন্ধী। তারা এখন পর্যন্ত সরকারীভাবে কোন ভাতা পায়নি।

মদন উপজেলা সমাজসেবা কর্মকর্তা শাহ জামান আহমেদ জনান, বিগত কিছুদিন যাবৎ বিষয়টি বিভিন্ন সংবাদ মাধ্যমে প্রচারের পর তিনি চেয়ারম্যানকে তাদের তালিকাভূক্ত করার জন্য কথা বলেছেন। তিনি আমাদের সংবাদদাতাকে জানান অবিলম্বে তাদের সমাজসেবা থেকে ভাতার ব্যবস্থা করা হবে।

জানা যায়, দিনমজুর আবুল মিয়া (৫০) র ৬ ছেলেমেয়ে তাদের মধ্যে ৪ জনই বাক প্রতিবন্ধী। ৪ শতাংশ বসতভিটা ছাড়া কোনো জমিও নেই তাই অন্যের বাড়িতে কাজ করে অতিকষ্টে সংসার চালায় আবুল মিয়া।

সংশ্লিষ্ট ইউপি চেয়ারম্যান ফখর উদ্দিন আহমেদ জানান, কৃষ্ণপুর গ্রামের দিন-মজুর আবুল মিয়ার প্রতিবন্ধী স্বর্না মনির নাম ২০১৯-২০ অর্থবছরের তালিকায় দেয়া হয়েছে। সমাজসেবা থেকে কার্ড বিতরণ হলে ভাতা পাবে।

বড় ছেলে দিদারুল ইসলাম (১৫) বাক-প্রতিবন্ধী। কথা বলতে পারে না কিন্তু সংসার চালাতে বাবার কষ্ট হয়। তাই বাবার সাথে সাথেই অন্যের বাড়িতে কাজ করতে যায়। বড় মেয়ে স্বর্না মনি (১৩) সেও বাক-প্রতিবন্ধী। কথা বলতে না পারলেও ঘরে মায়ের কাজে সহযোগিতা করে। লাকী আক্তার (৮) ও মোরসালিন (৩) বছর বয়সী তারাও বাক-প্রতিবন্ধী।

সরকার প্রতিবন্ধীদের জন্য ভাতার সু-ব্যবস্থা থাকলেও দিন-মজুর এক পরিবারের ৪ জন বাক-প্রতিবন্ধী সন্তান থাকার পরেও তাদের ভাগ্যে জোটেনি কোনো সরকারি ভাতা।তাই বিষয়টি নিয়ে ক্ষোভ জানিয়েছেন এলাকাবাসী।এর জন্য স্থানীয় ইউপি চেয়ারম্যান ও মেম্বারদের দায়ী করেছেন তারা।