ভারতে ছাড়পত্র পেল অক্সফোর্ডের টিকা

প্রকাশিত: ৯:১৬ অপরাহ্ণ , জানুয়ারি ১, ২০২১

দীর্ঘ প্রতিক্ষার অবসান হলো ভারতীয়দের। করোনায় মৃত্যুপুরী দেশটিতে বছরের প্রথম দিনেই সুখবর মিলেছে করোনার টিকা নিয়ে। দেশটির স্বাস্থ্য মন্ত্রণালয়ের বিশেষজ্ঞ কমিটি ছাড়পত্র দিয়েছে অক্সফোর্ডের টিকা। খবর এনডিটিভির। 

এর আগে ভারতে পরীক্ষামূলকভাবে টিকা প্রয়োগ শুরু হয়েছিল। এবার চূড়ান্ত ছাড়পত্র পেল। শিগগিরই তা গণহারে প্রয়োগ হবে।

অক্সফোর্ডের করোনা টিকা ভারতে তৈরি করছে সেরাম ইনস্টিটিউট। সেই টিকাকেই সরকারি বিশেষজ্ঞ কমিটির পক্ষ থেকে ছাড়পত্র দেয়া হল। এরপর এটিকে ওষুধ নিয়ন্ত্রক সংস্থা, ‘ড্রাগ কন্ট্রোল জেনারেল অব ইন্ডিয়া’-র কাছে পাঠানো হবে।

অ্যাস্ট্রাজেনেকা ও অক্সফোর্ড বিশ্ববিদ্যালয়ের যৌথ গবেষণায় তৈরি কোভিশিল্ড ভারতে তৈরি করছে সেরাম ইনস্টিটিউট। ভারত বায়োটেক আইসিএমআর-এর সঙ্গে যৌথভাবে তৈরি করছে কোভ্যাক্সিন।

এর আগে গত বুধবার বিশেষজ্ঞ প্যানেলের সামনে দুই টিকা নির্মাতা সংস্থাই তাদের প্রস্তাবনা স্পষ্ট করে। ফাইজারের পক্ষ থেকে আরও সময় চাওয়া হয়। একবার কেন্দ্রীয় ওষুধ নিয়ন্ত্রক সংস্থার পক্ষ থেকে ছাড়পত্র পেলে পরের মাস থেকেই দেশে করোনা টিকা দেওয়ার কাজ শুরু করতে চায় কেন্দ্র, এমনই দাবি করা হয়েছে সংবাদ সংস্থার তরফ থেকে।

অন্য দিকে করোনা টিকার পরীক্ষামূলক প্রযোগ বা ‘ড্রাই রান’ আগামিকাল শনিবার থেকেই শুরু হচ্ছে। দিল্লিতে শুরু হওয়া ড্রাই রানের উপর নজর রাখবেন খোদ ভারতের কেন্দ্রীয় স্বাস্থ্য মন্ত্রী হর্ষবর্ধন।

সংক্রমণের হারে বিশ্বে দ্বিতীয় অবস্থানে রয়েছে ভারত। যেখানে দেশটিতে এখন পর্যন্ত এক কোটি ২ লাখ ৮৭ হাজার মানুষ ভাইরাসটিতে ভুগছেন। মৃত্যু হয়েছে এক লাখ ৪৯ হাজার ১৮ জনের। তবে আশার কথা হল অন্যান্য দেশের তুলনায় ভারতে সুস্থতার হার অনেক বেশি।

অন্যদিকে, দেশটিতে নতুন করে আতঙ্ক ছড়াতে শুরু করেছে নতুন প্রজাতির করোনা। নতুন করে যাতে ৫ জন আক্রান্ত হয়েছে। এ নিয়ে নতুন স্ট্রেইনে ভুগছেন ২৫ জন। এর মধ্যে শিশুও রয়েছে।