নৌবাহিনীকে ত্রিমাত্রিক বাহিনীতে পরিণত করা হয়েছে

প্রকাশিত: ৪:৪১ অপরাহ্ণ , ডিসেম্বর ৩০, ২০২০

নৌবাহিনীকে ত্রিমাত্রিক বাহিনীতে রুপান্তর করা হয়েছে বলে জানিয়েছেন প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা। তিনি বলেছেন, ‘নৌবাহিনীকে আরও শক্তিশালী করতে ২৭টি যুদ্ধ জাহাজ ও ২টি সাবমেরিন সংযোজন করা হয়েছে। 

শেখ হাসিনা বলেন, ‘স্বাধীনতা স্বার্বভৌমত্ব রক্ষায় নৌবাহিনীকে সবরকম প্রস্তুত থাকতে হবে। তবে কারো সাথে যুদ্ধ নয়, সকলের সাথে বন্ধুত্ব, করো সাথে বৈরিতা নয় এই পররাষ্ট্রনীতি নিয়েই আমরা চলব। আমরা শান্তি চাই, যুদ্ধ চাই না।’

আজ বুধবার ‘মিডশিপম্যান-২০১৮ আলফা’ এবং ‘ডিইও ২০২০ ব্রাভ ‘ ব্যাচের শীতকালীন রাষ্ট্রপতি কুচকাওয়াজ অনুষ্ঠানে যোগ দিয়ে প্রধানমন্ত্রী এসব কথা বলেন।

সরকার প্রধান বলেন, ‘বঙ্গবন্ধু যখন ৬ দফা দাবি পাকিস্তানি শাসকদের কাছে পেশ করেন, সেখানে নৌবাহিনীর হেডকোর্টার যাতে বাংলাদেশে হয় সে দাবিও তুলেছিলেন। আমাদের মহান মুক্তিযুদ্ধেও নৌবাহিনীর অনেক ভূমিকা রয়েছে। স্বাধীনতা পরবর্তী সময়ে বঙ্গবন্ধু নৌবাহিনী গড়ে তোলেন। সে সময় আমাদের বন্ধু প্রতীম দেশ যুগ স্লোভাকিয়া ও ভারত থেকে ৫টি আধুনিক রণতরী সংগ্রহ করেন জাতির পিতা। এবং নৌবাহিনীর বৃহত্তর প্রশিক্ষণ ঘাটি-৫২ স্থাপন করেন।’

শেখ হাসিনা বলেন, ‘আমাদের প্রতিটি ঘরে ঘরে আলো জ্বলবে। ইতিমধ্যে প্রায় ৯৯ ভাগ মানুষের ঘরে বিদ্যুৎ পৌঁছাতে সক্ষম হয়েছি আমরা । বাংলাদেশের একটি মানুষও গৃহ হারা থাকবে না। এটাই আমাদের নীতি। যারা ভূমিহীন তাদের ঘর তৈরি করে দেয়া হচ্ছে।’

২০৪১ সালের মধ্যে বাংলাদেশকে উন্নত সমৃদ্ধ দেশ হিসেবে গড়ে তোলা হবে। সেই লক্ষ্য পরিকল্পনা প্রণয়ন করা হয়েছে বলেও জানান প্রধানমন্ত্রী।