ব্রিটেনের পর ইতালিতেও মিলল করোনার নতুন প্রজাতি

প্রকাশিত: ৬:১১ অপরাহ্ণ , ডিসেম্বর ২১, ২০২০

ব্রিটেনের পর এবার ইতালিতেও দু’জনের দেহে মিলল ভিন্ন বৈশিষ্ট্যের করোনাভাইরাস। রোববার সে দেশের স্বাস্থ্য মন্ত্রণালয় এ কথা জানিয়েছে।

ইতিালির স্বাস্থ্য মন্ত্রণালয় জানিয়েছে, কয়েকদিন আগেই ব্রিটেন থেকে এক আক্রান্ত ও তাঁর সঙ্গী ইতালিতে ফেরেন। বিমানে প্রথমে তারা রোমের ফিউমিসিনো বিমানবন্দরে নামেন। আপাতত তাদের আইসোলেশনে রাখা হয়েছে।

করোনাভাইরাসের এই নতুন প্রজাতি প্রথম মেলে ব্রিটেনে। আগের তুলনায় দ্রুত গতিতে ছড়াচ্ছে এই ভিন্ন বৈশিষ্ট্যের ভাইরাসটি। নতুন এই প্রজাতিটিকে নিয়ে গোটা ইউরোপে আতঙ্ক ছড়িয়েছে।

পরিস্থিতি সামাল দিতে হিমশিম খাচ্ছে ব্রিটিশ প্রশাসন। দক্ষিণ-পূর্ব ইংল্যান্ড এবং লন্ডনে নতুন করে লকডাউন ঘোষণা করেছে বরিস জনসনের সরকার।

ইতিমধ্যেই ইউরোপের বহু দেশ ব্রিটেন থেকে আসা বিমানের ঢোকা নিষিদ্ধ করেছে। বেলজিয়াম, নেদারল্যান্ডস ব্রিটেনের সমস্ত বিমান বাতিল করেছে। ব্রিটেন সীমান্ত বন্ধ করে দিয়েছে বেলজিয়াম। নতুন করে যাতে সংক্রমণ ছড়িয়ে না পড়ে তাই আগাম সতর্কতা হিসেবে একই পথে হাঁটার সিদ্ধান্ত নিতে চলেছে জার্মানি।

ইটালিতে করোনার নতুন প্রজাতি ঢুকে পড়ায় তারাও ব্রিটেনের সব বিমান বাতিল করতে পারে বলে মনে করছেন বিশেষজ্ঞরা।

ব্রিটেনে নতুন প্রজাতির করোনাভাইরাস ছড়িয়ে পরার খবরে রোববারই সমস্ত আন্তর্জাতিক বিমান পরিষেবা বন্ধ করে দিয়েছে সৌদি আরব। তারা জানিয়েছে, ইউরোপ বা অন্য যে কোনও দেশ থেকে আসা যাত্রীদের দু’সপ্তাহের জন্য কোয়ারেন্টাইনে থাকতে হবে। সেই সঙ্গে করোনার পরীক্ষাও করাতে হবে তাদের।

সৌদির পাশাপাশি কুয়েতও ব্রিটেনের যাত্রীবাহী বিমানের উপর আপাতত নিষেধাজ্ঞা জারি করেছে।

গত সেপ্টম্বরে দক্ষিণ-পূর্ব ইংল্যান্ডে করোনার এই নতুন প্রজাতিটি পাওয়া গিয়েছিল। সেখান থেকে তা দেশের অন্য প্রান্তেও ছড়িয়ে পড়ে এবং খুব দ্রুত গতিতে।

ব্রিটিশ প্রধানমন্ত্রী বরিস জনসন জানিয়েছেন, করোনার এই নতুন প্রজাতি আগের তুলনায় ৭০ শতাংশ বেশি সংক্রমণ ছড়াতে পারে। যা খুব মারাত্মক পর্যায়ে পৌঁছতে পারে বলেও আশঙ্কা প্রকাশ করেছেন তিনি। ইতিমধ্যেই এই নতুন প্রজাতিটিকে সামলাতে হিমশিম খাচ্ছে ব্রিটিশ প্রশাসন।

বিজ্ঞানীরা বলছেন, করোনার ধরন পরিবর্তনের বিষয়টি আশ্চর্যজনক নয়। তাদের দাবি, করোনাভাইরাস যখন খুঁজে পাওয়া গেল তখনই দেখা গিয়েছে হাজারেরও বেশি বার ধরন পরিবর্তন করার ক্ষমতা রয়েছে এই ভাইরাসের।