মামলার সাক্ষী দেয়া বসত বাড়ী পুড়িয়ে ছাই করে দিলো নয়ন আকন ও সুমন মুন্সি

প্রকাশিত: ৭:৫৭ অপরাহ্ণ , ডিসেম্বর ১০, ২০২০

সাইফুল ইসলাম,শরীয়তপুর সংবাদদাতা । শরীয়তপুর জেলা গোসাইরহাট উপজেলা নাগের পাড়া ইউনিয়নের মুন্সি কান্দি মাওলানা আলমগীর হোসেন ছেরাঙ্গ এর বসতঘরে পুড়িয়ে ছাই করে দেয় নয়ন আকন ও সুমন মুন্সি। স্থানীয় ও প্রত্যক্ষদর্শী সূত্রে জানা যায়,গত ৮ ডিসেম্বর পূর্বের মামলার সাক্ষী দেয় আলমগীর হোসেন ছেরাঙ্গ ও তার ভাই , ঔ মামলার সাক্ষী দেয়ায় আলমগীর হোসেন ছেরাঙ্গ এর বসত ঘরে আগুন লাগিয়ে দেন, নয়ন আকন, শওন আকন, সুমন আলমগীর হোসেন ছেরাঙ্গ বলেন আমার বসত ঘরে পরিকল্পিত ভাবে আগুন জ্বালিয়ে দেয় রাত ১টার দিকে৷ আমার ছোট ভাই দেখতে পেয়ে সবাইকে ডাক দেয়, এলাকার লেক এসে আমার বসত ঘরে আগুন নিভিছে, আমি শেখ হাসিনার কাছে বিচারের দাবী জানাচ্ছি। আমার বসত ঘরে সকল মালামাল পুড়ে ছাই হয়ে গেছে, আমার শরীলে পরিহিত পোশাক ছারা আর কোনো পোশাক নাই। আলমগীর হোসেন ছেরাঙ্গ এর চাচতো ভাই মোশারফ ছেরাঙ্গ বলে মামলার সাক্ষী দেয়াতে আমার চাচতো ভাই আলমগীর হোসেন ছেরাঙ্গ এর ঘরে আগুন লাগিয়ে দেন, আমি গত দুই দিন আগে দেখছি দূর্বৃত্তরা দেশি রাম দা নিয়ে ঘোরাঘুরি করছে, ১.তাদিম মূধা২.আদিম মূধা.পিতা হেলাল মৃধা ৩.মিলন পেদা ৪.লিটন পেদা, পিতা, শাকেল আলী পেদা,নুরুআলম চৌকিদার পিতা ইউনুস চৌকিদার ৫.নয়ন ৬শওয়ন পিতা,টোটন আকন ৭.সুমন পিতা, আসরাব আলী মুন্সি এলাকাবাসী দাবী এই নয়ন ও সুমন মুন্সি কে আইনের আওতায় আনা হোক তাদের কে বিচারের কাঠগড়ায় দাড় করি উপযুক্ত শাস্তি দিলেন হয় তো এমন কাজ আর কেউ কার সাহস পাবে না।