নায়ক জাভেদের পাশে প্রধানমন্ত্রী

প্রকাশিত: ১২:৫৮ পূর্বাহ্ণ , জুন ৩, ২০২০

রাজা বাদশাহ বা রাজকুমার চরিত্রে যিনি বাংলা চলচ্চিত্রে দাপিয়ে বেড়িয়েছেন তিনি নায়ক জাভেদ। ভরাট গলায় তার আওয়াজ এখনো মানুষকে হারানো দিনের কথা মনে করিয়ে দেয়। তার আরেকটি বড় পরিচয় তিনি একজন সফল নৃত্য পরিচালক। তিনি প্রায় দুই শতাধিক চলচ্চিত্রে অভিনয় করেছেন। এক সময়ের পর্দা কাঁপানো এই নায়ক এখন গুরুতর অসুস্থ হয়ে বিছানায় পড়ে আছেন। চলছে আর্থিক সংকট।

চিত্রনায়ক ইলিয়াস জাভেদ অনেকদিন ধরেই অসুস্থ। চিকিৎসার খরচ যোগাতে আর্থিক টানাপোড়েনের মধ্যে দিয়ে তিনি দিন পার করছেন। তার পরিবার এ নিয়ে ভীষণ দুশ্চিন্তায় পড়েছিলেন। কিভাবে তার চিকিৎসা চালিয়ে যাবেন তারা জানেন না। এমন একটি মুহুর্তে তার অসুস্থতার খবর জেনে প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা তার পাশে দাঁড়িয়েছেন।

চিকিৎসার জন্য প্রধানমন্ত্রী তাকে নগদ ১০ লাখ টাকা অনুদান দিয়েছেন।

নায়ক জাভেদের স্ত্রী ডলি জাভেদ বলেন, অনেক দিন ধরেই জাভেদ অসুস্থ। তার মূত্রথলিতে টিউমার থেকে তা ক্যান্সারের পর্যায়ে রূপান্তরিত হয়েছে। দেড় মাস আগে রাজধানীর একটি হাসপাতালে জাভেদের অপারেশন করা হয়। তার চিকিৎসার জন্য আর্থিক সংকট দেখা দেয়।

সত্তরের দশকে নায়ক জাভেদ ছিলেন তুমুল জনপ্রিয়। নিশান, শাহাজাদা, মালকা বানু, রাজকুমারী চন্দ্রবান, আজো ভুলিনি, কাজল রেখা, সুলতানা ডাকু, সাহেব বিবি গোলাম, বিজয়িনী সোনাভান, রূপের রানী, চোরের রাজা, তাজ ও তলোয়ার, নরমগরম, তিন বাহাদুর, চন্দন দ্বীপের রাজকন্যা, রাজিয়া সুলতানা, জালিম, সতী কমলা, আলাদিন আলী বাবা, বাহারাম বাদশা, সিন্দাবাদসহ অসংখ্যা চলচ্চিত্রের মাধ্যমে তিনি পর্দা কাঁপিয়েছেন। তার নাচে দর্শকরা বিমোহিত হয়ে যেত। একজন সফল নায়ক ও নৃত্য নির্দেশক হিসেবে তার নাম উজ্জ্বল হয়ে থাকবে বাংলা চলচ্চিত্রে।