ভাসানীর আদর্শকে স্মরণ করা উচিত

প্রকাশিত: ৫:০১ অপরাহ্ণ , নভেম্বর ১৭, ২০২০

কৃষক শ্রমিক জনতালীগের সভাপতি বঙ্গবীর কাদের সিদ্দিকী বীর উত্তম বলেছেন, ‘দেশের এই পরিস্থিতিতে আমাদের সকলের উচিত মাওলানা আব্দুল হামিদ খান ভাসানীর জীবন চরিত্র ও তাঁর আদর্শকে স্মরণ করা। এই দুর্যোগ থেকে অব্যাহতি পেতে আমাদের আরো ত্যাগী হতে হবে।’

আজ মঙ্গলবার দুপুরে টাঙ্গাইলের সন্তোষে মাওলানা আব্দুল হামিদ খান ভাসানীর ৪৪তম মৃত্যুবার্ষিকী উপলক্ষে তাঁর মাজার জিয়ারত শেষে এ কথা বলেন তিনি।

কাদের সিদ্দিকী বলেন, ‘স্বাধীনতায় যার যা মর্যাদা তা স্বীকার করা উচিত এবং দেশকে সঠিকভাবে পরিচালনা করতে হলে সবাইকে নিয়ে সরকারের অগ্রসর হওয়া উচিত।’

এ সময় তিনি মাওলানা আব্দুল হামিদ খান ভাসানী ও দেশবাসীর মঙ্গল কামনা করেন।

এদিকে মাওলানা ভাসানীর মৃত্যুবার্ষিকী উপলক্ষে মাওলানা ভাসানী বিজ্ঞান ও প্রযুক্তি বিশ্ববিদ্যালয়, ভাসানী ফাউন্ডেশন, ভাসানী পরিবার ও বিভিন্ন রাজনৈতিক, সামাজিক ও সাংস্বৃতিক সংগঠনের পক্ষ থেকে সন্তোষে ভাসানীর পুস্পস্তবক অর্পণ করা হয়।।

ভাসানীর প্রতি  শ্রদ্ধা  জানিয়ে বিএনপির ভাইস চেয়ারম্যান বরকত উল্লাহ বুলু বলেন, ‘আজকে যদি মাওলানা আব্দুল হামিদ খান ভাসানী বেঁচে থাকতেন তা হলে বাংলাদেশে ভোটারবিহীন নির্বাচন হতে পারতো না। সে জন্য ভাসানী বিএনপির আদর্শের প্রতীক। তাই মাওলানা ভাসানীর আদর্শে উজ্জীবিত হয়ে স্বৈরাচার সরকারের পতন ঘটানোর জন্য ভাসানীর আদর্শই একমাত্র পথ। ’

তিনি বলেন, ‘বিএনপি জঙ্গিবাদ, আগুন, জ্বালাও পোড়াও বিশ্বাস করে না। বিএনপি জনগণের জন্য, রাষ্ট্রের স্বার্থে ও জাতির স্বার্থে রাজনীতি করে। দেশের স্বার্বভৌমত্বকে বিশ্বাস করে। তাই তো বেগম খালেদা জিয়া আর তারেক রহমানের ওপর এত নির্যাতন ও জুলুম অত্যাচার করে আসছে।’

এ সময় উপস্থিত ছিলেন, কেন্দ্রীয় বিএনপির ভাইস চেয়ারম্যান শিমুল বিশ্বাস, যুগ্ম মহাসচিব খাইরুল কবির খোকন, জেলা বিএনপির ভারপ্রাপ্ত সভাপতি ছাইদুল হক ছাদু ও সাধারণ সম্পাদক ফরহাদ ইকবাল প্রমুখ।