ভাড়ার জন্য মুরগি বিক্রেতাকে পিটিয়ে হত্যা করল বাড়িওয়ালা

প্রকাশিত: ১০:১৫ পূর্বাহ্ণ , নভেম্বর ১৩, ২০২০

বাড়িভাড়া ও পাওনা টাকার জের ধরে নারায়ণগঞ্জ শহরের নলুয়াপাড়া এলাকায় মেহেদী হাসান নামে এক মুরগি বিক্রেতাকে পিটিয়ে হত্যার অভিযোগ উঠেছে বাড়িওয়ালার বিরুদ্ধে। বৃহস্পতিবার (১২ নভেম্বর) রাত সাড়ে ১১টার দিকে এ ঘটনা ঘটে। 

নিহত মেহেদী হাসান ওই এলাকার মৃত ফজল মিয়ার ছেলে। নিহতের স্বজন ও প্রত্যক্ষদর্শীরা জানান, মেহেদী হাসানের ছোট ছেলে আল আমিন শহরের নলুয়াপাড়া এলাকার মো. রানার বাড়িতে  ভাড়া থাকত। গত মাসে বাড়ি ভাড়ার অর্ধেক টাকা বকেয়া ছিল। এর জের ধরে আল আমিনের বাবা মেহেদী হাসানের মুরগির দোকান থেকে রানা বৃহস্পতিবার রাতে মুরগি নিয়ে যেতে চায়। মেহেদী দিতে অস্বীকার করেন। পরে নিহতের ছেলেকে ডেকে এনে মারধর করে। এ সময় তার বাবা মেহেদী বাধা দিলে বাড়ির মালিক রানাসহ তার স্বজনরা মেহেদীকে পিটিয়ে গুরুতর আহত করে।  পরে স্থানীয়রা তাকে উদ্ধার করে নারায়গঞ্জ জেনারেল হাসপাতালে নিয়ে গেলে কর্তব্যরত চিকিৎসকরা তাকে মৃত ঘোষণা করেন।

এ বিষয়ে নারায়ণগঞ্জ সদর মডেল থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা (ওসি) আসাদুজ্জামান জানান, ‘বাড়ি ভাড়ার টাকা বাকি ছিল। এ ভাড়ার টাকাকে কেন্দ্র করে বাড়িওয়ালা মেহেদি হাসানকে ধাক্কা দিলে তিনি পড়ে গিয়ে গুরুতর আহত হন। পরে হাসপাতালে নিয়ে গেলে তার মৃত্যু হয়। নিহতের ময়নাতদন্তের জন্য লাশ হাসপাতালের মর্গে প্রেরণ করা হয়েছে।’

ঘটনার পর থেকে বাড়ির মালিকসহ জড়িতরা পলাতক রয়েছে। তাদেরকে গ্রেফতারের চেষ্টা চলছে বলে জানান তিনি।