“মা সম্পর্কে ভালো কথা বলার বিনিময়ে খাবার বিতরণ” করলো শিক্ষার্থী সহযোগিতা সংগঠন

প্রকাশিত: ৮:৩৯ অপরাহ্ণ , নভেম্বর ১, ২০২০

 

পাবনা জেলার বেড়া উপজেলায় শিক্ষার্থীদের দ্বারা পরিচালিত শিক্ষার্থী সহযোগিতা সংগঠন।তারা ৫ বছর ধরে বেড়া উপজেলা সহ বাংলাদেশের বিভিন্ন জেলায় গরীব ও অসহায় দের সাহায্য সহযোগিতা করে আসছে।তারই প্রেক্ষাপটে তারা নতুন একটা ব্যতিক্রম প্রোগ্রাম করলো বেড়া উপজেলায়।”মা সম্পর্কে ভালো কথা বলার বিনিময়ে খাবার বিতরণ করে”।এখানে খেতে কোনো টাকা লাগে না, মা সম্পর্কে দুইটা ভালো কথা বললেই হবে। তারা প্রায় ১৫০ পেকেট খিচুড়ি মাংস বিতরণ করে ছোট বাচ্চা এবং অসহায় মানুষের মাঝে।সংগঠনের সদস্যদের সঙ্গে কথা বলে জানা যায়, বছর পাঁচেক আগে ঐতিহ্যবাহী বেড়া বিপিন বিহারী সরকারি উচ্চবিদ্যালয়ের সপ্তম ও অষ্টম শ্রেণির কয়েকজন শিক্ষার্থী টিফিনের টাকা বাঁচিয়ে গঠন করে শিক্ষার্থী সহযোগিতা সংগঠন নামে সংগঠন। শুরুর দিকে তারা দরিদ্র শিক্ষার্থীদের শিক্ষাসংক্রান্ত সহায়তাসহ দুস্থদেরও নানাভাবে সহায়তা করেছে।

যেখানেই তারা মানুষের অসহায়ত্বের খবর পেয়েছে, সেখানেই পৌঁছে গেছে। দুস্থদের মধ্যে খাদ্যসামগ্রী, চিকিৎসাসামগ্রী, শীতবস্ত্র প্রভৃতি বিতরণ করেছে। তাদের কর্মকাণ্ডে খুশি হয়ে অনেক সচ্ছল ও ধনী ব্যক্তি সংগঠনের তহবিলে অর্থসহ বিভিন্ন রকম সামগ্রী দান করছেন। বর্তমানে সংগঠনটির সঙ্গে যুক্ত হয়েছে বেড়া উপজেলার বিভিন্ন শিক্ষাপ্রতিষ্ঠানের শতাধিক শিক্ষার্থী।এ সময় উক্ত অনুষ্ঠানে উপস্থিত ছিলেন এযুগের দ্বীপের সম্পাদক ওমর আলী সরকার, মেহেরাব হোসেন জিম, আলভি সাজিদ, রাকিব হোসেন, মাকসুদা মানিক মেঘলা, প্রান্ত, মাহবুবা মানিক আতিয়া, আনিস,হাসান, মিলন, রোহান বারি, সৌরভ নূর, রবিউল ইসলাম শুভ, মনির খান,রাতুল,সুলতানা খাতুন,অরনব,তানভির, দ্বীপ,সিমান্ত,সাকিব।

সংগঠনের প্রতিষ্ঠাতা ও সভাপতি মেহরাব হোসেন বলেন; মা তো মাই। মায়ের প্রতি মমত্ববোধকে বাড়িয়ে দেওয়ার জন্য আমাদের এই প্রোগ্রামের আয়োজন। এছাড়াও আমরা আরেকটি দিক দেখেছি যারা খাবার নিবে তাদের ট্রে জিইডি থাকবে এমন আমরা খাবার ভিক্ষা করে নিচ্ছি না। আমরা কিছু বলে বা করে খাবার নিচ্ছি।