আমিরাতে শ্রমিকদের ভিসা পদ্ধতি সহজ করার আহ্বান পররাষ্ট্রমন্ত্রীর

প্রকাশিত: ১০:১৬ অপরাহ্ণ , মার্চ ৮, ২০২৪

সংযুক্ত আরব আমিরাত সফররত পররাষ্ট্রমন্ত্রী ড. হাছান মাহমুদ আমিরাতের সকল ট্রেডে বাংলাদেশী শ্রমিকদের জন্য ভিসা পদ্ধতি সহজ করা এবং এক নিয়োগকর্তার কাছ থেকে অন্য নিয়োগকর্তার কাছে ওয়ার্ক পারমিট স্থানান্তর সহজীকরণের অনুরোধ জানিয়েছেন।

তিনি আমিরাতের মানবসম্পদ ও এমিরেটাইজেশন বিষয়ক মন্ত্রী ড. আব্দুল রহমান আল আওয়ারের সাথে বৈঠককালে এ আহ্বান জানান। আজ শুক্রবার সকালে দুবাইয়ে মন্ত্রী আব্দুল রহমান আল আওয়ারের কার্যালয়ে এই বৈঠক অনুষ্ঠিত হয় বলে ঢাকায় প্রাপ্ত এক সংবাদ বিজ্ঞপ্তিতে জানানো হয়েছে।

বৈঠকে পারস্পরিক স্বার্থ সংশ্লিষ্ট দ্বিপাক্ষিক বিষয়াদির মধ্যে আমিরাতে বাংলাদেশি স্নাতক নার্স, কেয়ারগিভার, স্বাস্থ্যসেবা টেকনিশিয়ান, কৃষিবিদ ও কৃষক ও বিভিন্ন পেশাজীবীসহ সব কর্ম অঙ্গনে আরও বাংলাদেশী নাগরিকদের নিয়োগের বিষয় নিয়ে আলোচনা করেন দুই মন্ত্রী।

পররাষ্ট্রমন্ত্রী হাছান আমিরাতের সব ট্রেডে সকল শ্রেণির বাংলাদেশী শ্রমিকদের জন্য ভিসা পুনরায় চালু করা, ভিসা পদ্ধতি সহজ করা এবং এক নিয়োগকর্তার কাছ থেকে অন্য নিয়োগকর্তার কাছে ওয়ার্ক পারমিট স্থানান্তর সহজীকরণের অনুরোধ জানান।

আমিরাতের মানবসম্পদমন্ত্রী বাংলাদেশী কর্মীদের কর্মসংস্থানে কোনো বাধা নেই জানিয়ে বলেন, সংযুক্ত আরব আমিরাত সরকার প্রযুক্তি-চালিত চাকরির বাজারের চাহিদার ভিত্তিতে দক্ষ কর্মী নিয়োগের ওপর জোর দিচ্ছে।

তিনি সংযুক্ত আরব আমিরাতের কর্মী নিয়োগ ও ব্যবস্থাপনা প্রক্রিয়ায় এআই ও সম্পর্কিত সফটওয়্যার ব্যবহার সম্পর্কে অবহিত করেন এবং চাকরি প্রার্থীদের দক্ষতা যাচাই পদ্ধতি তুলে ধরেন।

এই প্রেক্ষাপটে পররাষ্ট্রমন্ত্রী হাছান আমিরাতগামী কর্মীবাহিনীর দক্ষতা বৃদ্ধির জন্য বাংলাদেশ সরকারের উদ্যোগ সম্পর্কে জানান এবং সেখানকার চাকরির বাজারের চাহিদা অনুসারে বাংলাদেশী কর্মীদের প্রস্তুত করতে সংযুক্ত আরব আমিরাতের ভাষা প্রশিক্ষক নিয়োগের কথা জানান।

বৈঠকে মন্ত্রী ড. হাছান কুয়েতে বাংলাদেশী নার্স নিয়োগের কথা উল্লেখ করে বাংলাদেশ থেকে যোগ্য নার্স ও চিকিৎসা পেশাজীবী নিয়োগের জন্য আমিরাতকে অনুরোধ করেন। সংযুক্ত আরব আমিরাতের মন্ত্রী প্রস্তাবকে স্বাগত জানিয়ে ঢাকায় আসন্ন যৌথ কারিগরি কমিটির বৈঠকে কুয়েতি নিয়োগের মডেল পরীক্ষা করবেন বলে আশ্বাস দেন।

উভয় পক্ষ সংযুক্ত আরব আমিরাতে বাংলাদেশী প্রবাসীদের কল্যাণমূলক বিষয় নিয়েও আলোচনা করেছেন।

পররাষ্ট্রমন্ত্রী হাছান মাহমুদ এ সময় সাইন অফ করা নাবিকদের সিডিসি নিয়ে দেশে ফেরার ক্ষেত্রে সংযুক্ত আরব আমিরাতের বন্দরগুলো ব্যবহারের চ্যালেঞ্জগুলোর কথা গুরুত্বসহ উত্থাপন করলে সংযুক্ত আরব আমিরাতের মন্ত্রী এটি তার মন্ত্রণালয় জরুরিভাবে দেখবে বলে আশ্বস্ত করেন।

সংযুক্ত আরব আমিরাতে নিযুক্ত বাংলাদেশের রাষ্ট্রদূত মোঃ আবু জাফর, দুবাইয়ে নিযুক্ত কনসাল জেনারেল এবং পররাষ্ট্র মন্ত্রণালয়ের পশ্চিম এশিয়া শাখার মহাপরিচালক বৈঠকে উপস্থিত ছিলেন।

এ দিন সন্ধ্যায় আবুধাবির আল আইন শহরের রয়্যাল প্যালেসে সংযুক্ত আরব আমিরাতের পররাষ্ট্রমন্ত্রী শেখ আবদুল্লাহ বিন জায়েদ আল নাহিয়ানের সঙ্গে পররাষ্ট্রমন্ত্রী ড. হাছান মাহমুদের দ্বিপাক্ষিক বৈঠক অনুষ্ঠানের কথা রয়েছে।

সংযুক্ত আরব আমিরাতে দুই দিনের সফরে মন্ত্রী ঐতিহাসিক ৭ মার্চ উপলক্ষে সেখানে বাংলাদেশী প্রবাসীদের সঙ্গে একটি কমিউনিটি মিটিংয়ে যোগ দেবেন এবং অন্যান্য বিশিষ্টজনের সঙ্গে সাক্ষাৎ করবেন। বাংলাদেশ আওয়ামী লীগের কেন্দ্রীয় কমিটির ধর্ম বিষয়ক সম্পাদক অ্যাডভোকেট সিরাজুল মোস্তফা মন্ত্রীর সঙ্গে রয়েছেন।

Loading