৫ বছরে ৬০ লাখ কর্মী বিদেশে পাঠানোর পরিকল্পনা

প্রকাশিত: ১:৫৮ অপরাহ্ণ , ফেব্রুয়ারি ২৯, ২০২৪

প্রবাসীকল্যাণ ও বৈদেশিক কর্মসংস্থান প্রতিমন্ত্রী শফিকুর রহমান চৌধুরী জানিয়েছেন, আগামী পাঁচ বছরে ৬০ লাখ কর্মী বিদেশে পাঠানোর পরিকল্পনা রয়েছে।

গত মঙ্গলবার জাতীয় সংসদে সরকারি দলের সংসদ সদস্য নুরুন্নবী চৌধুরীর প্রশ্নের জবাবে প্রতিমন্ত্রী এ কথা জানান।

স্পিকার শিরীন শারমিন চৌধুরীর সভাপতিত্বে বৈঠকের শুরুতে প্রশ্নোত্তর পর্ব অনুষ্ঠিত হয়।

প্রশ্নোত্তর পর্বে প্রতিমন্ত্রী শফিকুর রহমান বলেন, ২০২২ সালে ১১ লাখ ৩৫ হাজার ৮৭৩ জন কর্মী কর্মসংস্থানের জন্য বিদেশে গেছেন। ২০২৩ সালে এ সংখ্যা ১৩ লাখ ৫ হাজার ৪৫৩ জনে উন্নীত হয়।

স্বতন্ত্র সংসদ সদস্য আব্দুল্লাহ নাহিদ নিগারের প্রশ্নের জবাবে বৈদেশিক কর্মসংস্থান প্রতিমন্ত্রী জানান, বাংলাদেশ থেকে বিশ্বের প্রায় ১৭৬টি দেশে কর্মী পাঠানো হচ্ছে।

আরেক স্বতন্ত্র সংসদ সদস্য মুহাম্মদ সাইফুল ইসলামের প্রশ্নের জবাবে প্রবাসীকল্যাণ প্রতিমন্ত্রী জানান, মধ্যপ্রাচ্যের সৌদি আরব, কাতার, কুয়েত, বাহরাইন, ওমান, সংযুক্ত আরব আমিরাত বাংলাদেশের অন্যতম শ্রমবাজার। রোহিঙ্গাদের কারণে মধ্যপ্রাচ্যে বাংলাদেশের শ্রমবাজার ঝুঁকির মধ্যে নেই। ২০২৩ সালে সৌদি আরবে ৪ লাখ ৯৭ হাজার ৬৭৪, ওমানে ১ লাখ ২৭ হাজার ৮৮৩, সংযুক্ত আরব আমিরাতে ৯৮ হাজার ৪২২, কাতারে ৫৬ হাজার ১৪৮ এবং কুয়েতে ৩৬ হাজার ৫৪৮ জন কর্মী পাঠানো হয়েছে।

সরকারি দলের সংসদ সদস্য আনোয়ারুল আজীমের প্রশ্নের জবাবে খাদ্যমন্ত্রী সাধন চন্দ্র মজুমদার বলেন, ২০ ফেব্রুয়ারি পর্যন্ত সরকারি খাদ্যগুদামে ১৬ লাখ ৭৯ হাজার টন খাদ্যশস্য মজুত রয়েছে। এর মধ্যে ১৪ লাখ ৩৮ হাজার টন চাল এবং ২ লাখ ৪১ হাজার টন গম। খাদ্য মজুত বর্তমানে সন্তোষজনক। খাদ্য মজুত বৃদ্ধির জন্য সরকার অভ্যন্তরীণ সূত্রে চাল ও গম সংগ্রহ করছে। বিদেশ থেকে চাল-গম আমদানি কার্যক্রম গ্রহণ করা হয়েছে।

Loading