নিউজ রুম এডিটর, নিউজ৭১অনলাইন

বাংলাদেশের জনসংখ্যা সুসংবাদ দু:সংবাদ

মাহমুদুল হক আনসারী :: 
বাংলাদেশের জনসংখ্যা দ্রুত বাড়ছে। প্রতি ১৩ সেকেন্ড একজন করে জন্মগ্রহণ করছে। আর ১৪৪ সেকেন্ডে একজনের মৃত্যু হচ্ছে। গড় হিসেবে প্রতি দুই মিনিট ২৪ সেকেন্ডে মোট জনসংখ্যায় ১১ জন বৃদ্ধির বিপরীতে ১ জনের মৃত্যু হওয়ায় ওই সময়ে জনসংখ্যায় ১০ জন যুক্ত হচ্ছে। দিনে যুক্ত হচ্ছে প্রায় ৬ হাজার মানুষ। বাংলাদেশ পরিসংখ্যান ব্যুরো(বিবিএস)-এর তথ্যানুযায়ী ১৯৭৪ সালে জনসংখ্যা ছিল ৭ কোটি ১৪ লাখের মতো,  ১৯৯১ সালে ১০ কোটি ৬৩ লাখ এবং ২০১১ সালে তা হয় ১৪ কোটি ২৩ লাখ। জনসংখ্যা বৃদ্ধির হিসেবে জানুয়ারী ২০১৮ তে মোট জনসংখ্যা ছিল ১৬ কোটি ৩৬ লাখ ৫০ হাজার। বিবিএস-এর তথ্য মতে, ১৮ সালের জুলাই পর্যন্ত দেশের মোট জনসংখ্যা ছিল ১৬ কোটি ৭৪ লাখ ৬৯ হাজার। এ জনসংখ্যার ৬৬.৬৯ ভাগ অর্থাৎ সংখ্যার হিসেবে ১১ কোটি ১৬ লাখ ৭৮ হাজার মানুষ কর্মক্ষম। মোট কর্মক্ষম মানুষের মধ্যে নারী ৫ কোটি ৬৫ লাখ ৩৮ হাজার এবং পুরুষ ৫ কোটি ৫১ লাখ ৪০ হাজার। বাংলাদেশের বর্তমান জনসংখ্যাকে তাত্তিক বিবেচনায় সু-সংবাদ বলে অভিহিত করা যায়। জনসংখ্যাবিদ ও অর্থনীতিবিদদের মতে  কর্মক্ষম জনসংখ্যা অর্থাৎ ডেমোগ্রাফিক ডিভিডেন্ট দিক দিয়ে বাংলাদেশ বর্তমানে স্বর্ণযুগে অবস্থান করছে। যখন কোনো দেশের মোট জনসংখ্যার ৬০ শতাংশের বেশি কর্মক্ষম থাকে তখন ওই দেশ ডেমোগ্রাফিক বোনাস কালে অবস্থান করছে বলে ধরা হয়। এ সংখ্যা কোনো না কোনোভাবে অর্থনৈতিক কাজে অংশগ্রহণ করে এবং দেশের জিডিপিতে অবদান রাখে। এটা বাংলাদেশের উন্নয়নের জন্য এক সুবর্ণ সুযোগ বলা যায়। আমরা সে সুযোগকে কাজে লাগাতে পারছি না। বিবিএসের সর্বশেষ রিপোর্ট অনুযায়ী কর্মে নিয়োজিত মানুষের সংখ্যা ৬ কোটি ৮ লাখ। সংখ্যার হিসেবে ১১ কোটি ১৬ লাখ ৭৮ হাজার মানুষ কর্মক্ষমের মধ্যে ৫ কোটি ৮ লাখ মানুষের কর্মক্ষমতা জাতীয় উৎপাদনের ক্ষেত্রে ব্যবহার করা যাচ্ছে না, যাদের বড় অংশ নারী। গৃহকাজে তাদের অবদানকে খাটো করে না দেখেও বলা যায় অর্থ উপার্জনমুখী কর্মকান্ডে নারীদের আরো বড় আকারে জড়িত হওয়ার সুযোগ রয়েছে। তাত্তিক বিচারে দেশের বর্তমান জনসংখ্যাকে আশীর্বাদ হিসেবে বলা হলেও জনসংখ্যা বৃদ্ধির গতি প্রায় শূন্যের পর্যায়ে নামিয়ে না আনতে পারলে একসময় বিপুল জনগোষ্ঠীর কর্মসংস্থান তথা খাদ্য, বাসস্থান সংস্থানে সংকট ঘনীভূত যা কাম্য হওয়া উচিত নয় সেটাই দু:সংবাদ। বর্তমানে জনসংখ্যা বৃদ্ধি উল্লেখযোগ্যভাবে নিয়ন্ত্রণ হচ্ছে বলে মনে করা ঠিক হবে না। জনসংখ্যা বৃদ্ধির চাপ ক্রমান্বয়ে হু হু করে বাড়ছে। বাড়াটা যেমনি অস্বাভাবিক নয়, তেমনিভাবে জনসংখ্যাকে সঠিক কাজে ব্যবহার করা যাচ্ছে না। দেশে জনসংখ্যা বৃদ্ধির সাথে বাংলাদেশের কৃষি জমি প্রতিনিয়ত ছোট হয়ে আসছে। জমিগুলো কৃষি কর্মকান্ড থেকে গৃহ ও বাড়ি নির্মাণের জন্য ব্যবহার বাড়ছে। বাংলাদেশের আয়তন বাড়ছে না। সে তুলনায় জনসংখ্যা বৃদ্ধি অব্যাহত আছে। ফলে রাস্তাঘাট অবকাঠামো উন্নয়নে ভূমি ছেড়ে দিতে হচ্ছে। ফলে ভূমির আয়তন সামাজিক অবকাঠামোগত কারণে হ্রাস হচ্ছে। অপরদিকে জনসংখ্যার যে পরিমাণ চাপ বাড়ছে তার জন্য প্রয়োজন বাসস্থানের। এভাবে সব ধরনের জমি ছোট হচ্ছে। জনসংখ্যার কর্মক্ষম মানুষের বাইরে অক্ষম ও বেকারত্ব বৃদ্ধি পাচ্ছে। বেকারত্বের কর্মসংস্থান আশানুরূপ ভাবে বাস্তবায়ন হচ্ছে না। জনসংখ্যার মধ্যে এখনো কর্মক্ষম শিক্ষিত বেকার সংখ্যা উল্লেখযোগ্য। এসব বেকার শিক্ষিত মানুষগুলোকে কাজে লাগালে দেশে ও বিদেশ থেকে প্রচুর রেমিটেন্স আয় করা সম্ভব। শিক্ষিত বেকার গোষ্ঠীকে ঠিক সময়ে সামর্থ্যনুযায়ী কর্ম দেয়া না গেলে সেটার ফলও খারাপ হতে পারে। দেশে কর্মসংস্থান তৈরীর পাশাপাশি বহি:বিশ্বে শ্রমবাজার খুঁজতে হবে। যেসব দেশে বাংলাদেশের নাগরিক শ্রম কাজে নিয়োজিত তাদের খোঁজ খবর ও দেখভাল করতে হবে। প্রবাসী বাংলাদেশিদের কর্মক্ষেত্রে সুরক্ষা কঠোরভাবে নিয়ন্ত্রণ করতে হবে। নতুন নতুন শ্রমবাজার কর্মসংস্থান দেশে বিদেশে বের করতে হবে। জনসংখ্যার চাপকে সুসংবাদ হিসেবে ব্যবহার করার সময়োপযোগী সিদ্ধান্ত বাস্তবায়ন থাকতে হবে। বাংলাদেশে জনসংখ্যার চাপ ও বৃদ্ধিকে আশীর্বাদ হিসেবে দেখলে বেশি বলা হবে না। সঠিকভাবে জনসংখ্যাকে শক্তিতে রূপান্তর করার মাধ্যমে বাংলাদেশের জনসংখ্যার কর্মসংস্থান সৃষ্টি ও তৈরীর পরিকল্পনা গুরুত্ব সহকারে সংশ্লিষ্ট মন্ত্রণালয়কে দেখা দরকার। অব্যাহত জনসংখ্যার চাপ সামলাতে কর্মসংস্থানের বিকল্প নেই। পরিকল্পিত ভাবে নগর ও শহর উন্নয়ন করতে হবে। দীর্ঘ মেয়াদী পরিকল্পনায় গ্রাম ও শহরকে আনতে হবে। হাতে কলমে কারিগরী শিক্ষার বাস্তব প্রশিক্ষণ এবং সাথে সাথে কর্মসংস্থান করতে হবে। বাংলাদেশের জনসংখ্যা বৃদ্ধিকে কাজে ব্যবহার করতে পারলে দেশের জন্য কোনো অবস্থায় দু:সংবাদ নয়। আর যদি সঠিক সময়ে নির্দিষ্ট সময়ের মধ্যে যথাযথভাবে জনসংখ্যাকে কর্মক্ষম করে কর্মসংস্থান সৃষ্টি করা না হয় তাহলে তখন হবে জাতির জন্য দু:স্বপ্ন।
লেখক
মাহমুুদুল হক আনসারী
সংগঠক,গবেষক,কলামিষ্ট

21.02.2020 | 12:01 PM | সর্বমোট ৩০১ বার পঠিত

বাংলাদেশের জনসংখ্যা সুসংবাদ দু:সংবাদ" data-width="100%" data-numposts="5" data-colorscheme="light">

জাতীয়

কেউ যেন ঢাকায় ঢুকতে বা বের হতে না পারে

করোনাভাইরাসের মহামারী নিয়ন্ত্রণে চলমান লকডাউনের মধ্যে জরুরি সেবার সঙ্গে নিয়োজিতরা ছাড়া রাজধানীকে কেন্দ্র করে সাধারণ মানুষের আগমন-বহির্গমন বন্ধে কঠোর হওয়ার...... বিস্তারিত

05.04.2020 | 05:58 PM




রাজধানী

চট্টগ্রাম

কাপ্তাইয়ের প্রত্যন্ত পাহাড়ি এলাকায় খাদ্য পৌঁছে দিচ্ছে নৌবাহিনী

দেশ ব্যাপী করোনা ভাইরাস সংক্রমণ মোকাবেলায় কাপ্তাইয়ের প্রত্যন্ত পাহাড়ি এলাকার গরীব, দুঃস্থ ও অসহায় মানুষদের মাঝে খাদ্য সহায়তা প্রদান করেছে...... বিস্তারিত

05.04.2020 | 05:52 PM


ফেইসবুকে নিউজ ৭১ অনলাইন

ধর্ম

সেহরি ও ইফতারের সময়সূচি প্রকাশ

রমজান মাস আসন্ন। বছর ঘুরে আবারও আসছে মুসলিম জাতির জন্য অত্যন্ত পবিত্র এ মাসটি। ১৪৪১ হিজরি অর্থাৎ ইংরেজি ২০২০ সালের...... বিস্তারিত

05.04.2020 | 09:43 AM

বিনোদন

দু’হাতে দান করছেন; তবুও ধন্যবাদ নয়, বললেন আদেশ করুন

করোনাভাইরাস মোকাবেলায় এবার এগিয়ে এসেছেন বলিউড কিং শাহরুখ খান। নানামুখী সহায়তার উদ্যোগ নিয়ে প্রশংসায় ভাসছেন এই তারকা। অথচ দু’দিন আগেও...... বিস্তারিত

05.04.2020 | 06:31 PM

সর্বশেষ সংবাদ

সব পোস্ট

English News

সম্পাদকীয়

বিশেষ প্রতিবেদন

মানুষ মানুষের জন্য

আমরা শোকাহত


অতিথি কলাম


সাক্ষাৎকার


অন্যরকম

ভিডিওতে ৭১এর মুক্তিযোদ্ধের ইতিহাস


ভিডিও সংবাদ