আজহার মাহমুদ

আরো একবার হতাশা

হতাশা আর না পাওয়ার বেদনা যেখানে সঙ্গী হয়ে থাকবে বলে নিয়তি ঠিক করে রাখে, সেখানে বাংলাদেশ আর কিইবা করতে পারে। আরো একটি ফাইনাল। আরো একটি আক্ষেপের গল্প বাংলাদেশের জন্য। অথচ শুরুটা কতই সুন্দর ছিল। শেষ দুই ম্যাচও ছিল অসাধারণ। আফগানদের শেষ ওভারে আট রান না দেওয়া এবং পাকিস্তানকে ২৩৯ রান করেও হারিয়ে দেওয়া। কতটা অবাক হওয়ার মতো ম্যাচ জিতেছে বাংলাদেশ, তা স্বচোক্ষে না দেখলে বোঝা মুশকিল। ফাইনালটাও সে রকম হওয়ার কথা ছিল। কিন্তু সেটা আর হলো কই?

১২০ রানে যেখানে শূন্য উইকেট সেখানে ২২২ রানে ১০ উইকেট শেষ। তবু ছিল আশা। কারণ, দেশটি যে বাংলাদেশ! কত অদ্ভুত ইতিহাস করেছে তা তো বাংলার মানুষই ভালো জানে। কিন্তু এবার সেটা হলো না। শেষ বলে এসে চোখের এককোণে জল গড়িয়ে পড়ল বাংলার মানুষদের। তবু কম কোথায়? সামান্য এই পুঁজি দিয়েও খেলেছে ৫০ ওভার এবং খেলিয়েছে বিপক্ষ দলকে। পাওয়া না পাওয়ার হিসাব করলে এটাও একটা পাওয়া। তবু শিরোপার স্বাদ পাওয়ার স্বপ্নটা যে থেকেই গেল। নিস্তব্ধভাবে বসে থাকতে হলো আরো একবার।

আরো একবার হতাশায় মোড়ানো রাত বাংলাদেশের ক্রিকেটের জন্য। আরো একবার একটুর জন্য না পারার আক্ষেপ। আন্তর্জাতিক ক্রিকেটে বাংলাদেশ পুরুষ দলের ষষ্ঠ ফাইনাল ছিল এটি। এর আগে ৫ ফাইনালে কোনোবারই জেতা হয়নি। এবারও গল্পের শেষটা হ্যাপি এন্ডিং হলো না! কখনো প্রতিপক্ষের টেল এন্ডের বীরত্ব, কখনোবা বাংলাদেশের টেল এন্ডের চাপ নিতে না পারা, কখনোবা ভাগ্যের কোনোভাবেই বাংলাদেশের দিকে মুখ না ফেরানো। ২২২ রান করে ম্যাচের প্রথমার্ধেই হতাশার রেণু ছড়িয়ে দিয়েছিল বাংলাদেশ। শেষ বলের জয়ে আরেকটি এশিয়া কাপের ট্রফি নিয়ে ভারত যখন দুবাই ছাড়ার পরিকল্পনায় ব্যস্ত, তখন বাংলাদেশের ভাবনায় ব্রুসের সেই গল্প। দানে দানে সাতে যদি কিছু হয়!

আরেকটি ফাইনাল আরেকটি আক্ষেপের গল্প লিখেই শেষ করল বাংলাদেশ। এ নিয়ে তৃতীয়বারের মতো শিরোপার খুব কাছে গিয়েও খালি হাতে ফিরে আসতে হয়েছে বাংলার ছেলেদের। হ্যাট্রিক করেছে এশিয়া কাপে ফাইনাল হারের। আর সব মিলিয়ে ষষ্ঠবারের মতো ফাইনালের হার দেখতে হলো বাংলার কোটি কোটি মানুষকে। খেলা যখন শেষের দিকে তখন রাত ১টা থেকে বেশি। দেশের প্রতি টান আর ভালোবাসায় সকলেই রাত জেগে টিভি, মোবাইল, এফএম রেডিও নিয়ে ব্যস্ত। না, শুধু ক্রিকেটপাগল বা ক্রীড়াপ্রেমী বলে নয়, রাত জেগেছে যারা ক্রিকেট বুঝে না এবং কখনো খেলা দেখে না তারাও। কারণ একটাই, দেশ এবং দেশের প্রতি ভালোবাসা। হয়তোবা রাতের ঘুম চোখের অশ্রু মুছতে মুছতে চলে এসেছিল কিন্তু না পাওয়ার বেদনা বুকের একপাশে ঠিক জমিয়ে রেখেছে সবাই। তবে এতেই শেষ নয়। শেষ থেকে আবারও নতুনভাবে শুরু করবে বাংলাদেশ। এক দিন ঠিক না পাওয়ার আক্ষেপ আমাদের ঘোচাবে। সেই বিশ্বাস দেশের প্রতিটি মানুষের কাছে আছে। তাই না পাওয়ার এই কষ্ট, বেদনা আর হতাশাকে শক্তি হিসেবে নিয়ে সামনে এগিয়ে যাবে বাংলাদেশ ক্রিকেট—এই আশাটাই রইল সবার।

লেখক: আজহার মাহমুদ

প্রাবন্ধিক, কলামিষ্ট ও ছড়াকার

শিক্ষার্থী, জাতীয় বিশ্ববিদ্যালয়, চট্টগ্রাম।

ইমেইল: azharmahmud705@gmail.com

02.10.2018 | 02:34 PM | সর্বমোট ১৪৮ বার পঠিত

আরো একবার হতাশা" data-width="100%" data-numposts="5" data-colorscheme="light">

জাতীয়

প্রিয়া সাহার অভিযোগে কেউ বিভ্রান্ত হবেন না

যুক্তরাষ্ট্রের প্রেসিডেন্ট ডনাল্ড ট্রাম্পের কাছে বাংলাদেশে সংখ্যালঘু সম্প্রদায়ের ওপর নির্যাতনের বিষয়ে প্রিয়া সাহা যে অভিযোগ করেছেন তাতে বিভ্রান্ত না হওয়ার...... বিস্তারিত

21.07.2019 | 08:20 PM


রাজধানী

চট্টগ্রাম

চট্টগ্রামে বিএনপির বিভাগীয় মহাসমাবেশ শুরু

বিএনপি চেয়ারপারসন বেগম খালেদা জিয়ার মুক্তির দাবিতে চট্টগ্রাম বিএনপির বিভাগীয় মহাসমাবেশ শুরু হয়েছে। প্রশাসনের ২৭ শর্ত মেনে বিএনপির বিভাগীয় মহাসমাবেশের আয়োজন...... বিস্তারিত

20.07.2019 | 05:34 PM

ফেইসবুকে নিউজ ৭১ অনলাইন

ধর্ম

বিনোদন

সর্বশেষ সংবাদ

সব পোস্ট

English News

সম্পাদকীয়

বিশেষ প্রতিবেদন

মানুষ মানুষের জন্য

আমরা শোকাহত

অতিথি কলাম

সাক্ষাৎকার

অন্যরকম

ভিডিওতে ৭১এর মুক্তিযোদ্ধের ইতিহাস

ভিডিও সংবাদ