রামগড়ে ফারুক নামে সাবেক ছাত্রদল নেতাকে হত্যা করেছে দুবৃত্তরা।

বাহার উদ্দিন বাহার উদ্দিন

রামগড় প্রতিনিধি

প্রকাশিত: ৬:৩৩ অপরাহ্ণ , জুলাই ১২, ২০২০

খাগড়াছড়ির রামগড়ে সাবেক ছাত্রদল নেতাকে রাতের অন্ধকারে দুর্বৃত্তরা মাথায় আঘাত করে হত্যা করেছে।
নিহত মোহাম্মদ ফারুক রামগড় পৌরসভার কালাডেবা এলাকার বৈরাগী টিলার মোহাম্মদ আলী নেওয়াজ এর ছেলে। বর্তমানে তিনি ফটিকছড়ির ভুজপুর এলাকায় একটি ঔষধ কোম্পানিতে কর্মরত ছিলেন। রামগড় সরকারী ডিগ্রী কলেজ ছাত্রদলের সাবেক যুগ্ম আহ্বায়ক ফারুক
এলাকায় ভদ্র ছেলে হিসাবে সবার কাছে পরিচিত ।

ফারুকের বাবা আলী নেওয়াজ সাংবাদিকদের জানান, রামগড় উপজেলার ২নং পাতাছড়া ইউনিয়নের নাকাপা এলাকায় আজ রোববার ফারুকের জন্য একটি পাত্রী দেখার পূর্বনির্ধারিত তারিখ অনুযায়ী ফারুক শনিবার রাত দশটার দিকে রামগড় বাজার থেকে স্বর্ণের আংটি নিয়ে বাসায় ফিরছিল। দুর্বৃত্তরা তাকে মাথায় আঘাত করে মূমুষ অবস্থায় ফেলে যায়।এবং তার পাশে আংটি টি পড়ে থাকে।

স্হানীয় কাউন্সিলর কাজী আবুল বসর সাংবাদিকদের জানান, খবর পেয়ে তিনি লোকজন নিয়ে ঘটনাস্থলে যান এবং হাসপাতালে পাঠানোর ব্যবস্হা করেন। তিনি জানান নারী ঘটিত কারণে এই ঘটনা ঘটে থাকতে পারে। এ দিকে
শোকাহত পরিবারের প্রতি সমবেদনা জানিয়ে নৃশংস এ হত্যাকাণ্ডে জড়িত সন্ত্রাসীদের আইনের আওতায় এনে দ্রুত বিচার দাবি করেছেন সাবেক সংসদ সদস্য ও খাগড়াছড়ি জেলা বিএনপির সভাপতি ওয়াদুদ ভুইয়া। খাগড়াছড়ি জেলা ছাত্রদলের দফতর সম্পাদক বাপ্পী দাশ স্বাক্ষরিত এক শোক বার্তায় এ দাবি জানান তিনি।

ঘটনার সত্যতা নিশ্চিত করে রামগড় থানার ওসি মুহাম্মদ শামসুজ্জামান জানান, শনিবার রাতে কে বা কারা মোহাম্মদ ফারুককে মাথায় আঘাত করে জখম করে। পরে স্থানীয়রা তাকে উদ্ধার করে প্রথমে রামগড় স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সে এবং পরে চট্টগ্রাম মেডিকেল হাসপাতালে নিয়ে গেলে সেখানে তার মৃত্যু হয়। এ ঘটনায় ফারুকের বাবা বাদী হয়ে মামলা দায়ের করেছেন। মামলা নং ১/১৪।