মারা যাওয়া ৩৩ জন পুরুষ ১১ জন নারী

প্রকাশিত: ৩:২৮ অপরাহ্ণ , জুলাই ৬, ২০২০

দেশে করোনাভাইরাসে গেল ২৪ ঘণ্টায় নতুন করে আক্রান্ত হিসেবে শনাক্ত হয়েছেন ৩ হাজার ২০১ জন। দেশে মোট করোনায় আক্রান্তের সংখ্যা বেড়ে দাঁড়িয়েছে এক লাখ ৬৩ হাজার ৬১৮ জনে। এছাড়া করোনায় আক্রান্ত হয়ে আরও ৪৪ জন মারা গেছেন। ফলে মৃতের সংখ্যা বেড়ে দাঁড়িয়েছে দুই হাজার ৯৬ জনে।
সোমবার (৫ জুলাই) দুপুরে করোনাভাইরাস সংক্রান্ত নিয়মিত হেলথ বুলেটিনে এ তথ্য জানান স্বাস্থ্য অধিদপ্তরের অতিরিক্ত মহাপরিচালক (প্রশাসন) অধ্যাপক ডা. নাসিমা সুলতানা।
মোট ৭৩টি পরীক্ষাগারে করোনা পরীক্ষা চলছে জানিয়ে তিনি বলেন, গত ২৪ ঘণ্টায় করোনায় মারা গেছেন ৪৪ জন। এর মধ্যে পুরুষ ৩৩ জন ও নারী ১১ জন। এযাবত মারা যাওয়াদের মধ্যে পুরুষ ১৬৫৭ জন এবং নারী ৪৩৯ জন। পুরুষদের মারা যাওয়ার অনুপাত ৭৯.০৫ শতাংশ এবং নারীদের ২০.৬৫ শতাংশ।
গত ২৪ ঘণ্টায় মারা যাওয়া ১৭ জন ঢাকা বিভাগের, ১১ জন চট্টগ্রাম বিভাগের, তিনজন রাজশাহী বিভাগের, দুইজন খুলনা বিভাগের, চারজন বরিশাল বিভাগের, তিনজন সিলেট বিভাগের, দুইজন রংপুর বিভাগের এবং দুইজন ময়মনসিংহ বিভাগের। ৩৫ জন মারা গেছেন হাসপাতালে এবং ৯ জনের মৃত্যু হয়েছে বাসায়।
তথ্য উপস্থাপনের শুরুতে তিনি বলেন, তথ্য উপস্থাপনের আগে বন্যা কবলিত এলাকার জন্য কিছু কথা বলতে চাই। যারা বন্যাকবলিত এলাকায় আছেন তারা অবশ্যই টিউবওয়েলের পানি পান করবেন। পানি পাওয়া না গেলে পানি ফুটিয়ে পান করবেন অথবা পানি বিশুদ্ধকরণ ট্যাবলেট দিয়ে পানি বিশুদ্ধ করে নেবেন। বন্যার সময় বিভিন্ন প্রকার পানিবাহিত রোগ যেমন- ডায়রিয়া, আমাশয়, জন্ডিস ইত্যাদি রোগ থেকে রক্ষা পাওয়ার জন্য সব সময় খাবার ঢেকে রাখবেন এবং বাসি খাবার খাবেন না। রান্না করার আগে এবং খাবারের আগে অবশ্যই সাবান দিয়ে ভালো করে হাত ধুয়ে নেবেন। শিশুদের দিকে বিশেষভাবে খেয়াল রাখবেন। সর্পদংশন ও পানিতে ডোবা থেকে সতর্ক থাকবেন। প্রয়োজনে আপনার এলাকার কর্মরত মেডিকেল টিমের সাথে যোগাযোগ করবেন।
উল্লেখ্য, চীনের উহান শহর থেকে গত বছরের ডিসেম্বরে ছড়ানো করোনাভাইরাসের ছোবলে গোটা বিশ্ব মৃত্যুপুরীতে পরিণত হয়েছে। বাংলাদেশে করোনাভাইরাস প্রথম শনাক্ত হয় গত ৮ মার্চ এবং প্রথম মৃত্যু হয় ১৮ মার্চ।