আক্রান্ত তিন হাজার ৪৭১ জন

করোনায় দেশে ২৪ ঘণ্টায় সর্বোচ্চ মৃত্যু

প্রকাশিত: ৪:০১ অপরাহ্ণ , জুন ১২, ২০২০

মহামারি আকার ধারণ করা করোনা ভাইরাসে দেশে সর্বোচ্চ মৃত্যুর ঘটনা ঘটেছে। গত ২৪ ঘণ্টায় আরও ৪৬ জনের প্রাণ কেড়ে নিয়েছে এই ভাইরাস। এ নিয়ে ভাইরাসটিতে মোট এক হাজার ৯৫ জনের মৃত্যু হলো। এরআগে সর্বোচ্চ ৪৫ জনের মৃত্যু হয়েছিল।

এছাড়া গত ২৪ ঘণ্টায় আক্রান্ত হিসেবে শনাক্ত হয়েছেন আরও তিন হাজার ৪৭১ জন। ফলে করোনায় মোট আক্রান্তের সংখ্যা দাঁড়াল ৮১ হাজার ৫২৩ জনে।

শুক্রবার (১১ জুন) দুপুরে স্বাস্থ্য অধিদফতরের করোনাভাইরাস বিষয়ক নিয়মিত হেলথ বুলেটিনে এ তথ্য জানান অধিদফতরের অতিরিক্ত মহাপরিচালক অধ্যাপক ডা. নাসিমা সুলতানা।

ডা. নাসিমা জানান, নতুন সংযুক্ত তিনটিসহ মোট ৫৯টি ল্যাবে নমুনা পরীক্ষা করা হয়েছে। গত ২৪ ঘণ্টায় আরও ১৬ হাজার ৯৫০টি নমুনা সংগ্রহ করা হয়। পরীক্ষা করা হয় ১৫ হাজার ৯৯০টি নমুনা। এ নিয়ে দেশে মোট নমুনা পরীক্ষা করা হলো চার লাখ ৭৩ হাজার ৩২২টি।

তিনি জানান, নতুন নমুনা পরীক্ষায় করোনা সংক্রমণ শনাক্ত হয়েছে আরও তিন হাজার ৪৭১ জনের মধ্যে। ফলে আক্রান্তের সংখ্যা দাঁড়াল ৮১ হাজার ৫২৩ জনে। আক্রান্তদের মধ্যে মারা গেছেন আরও ৪৬ জন। এ নিয়ে মোট মৃত্যু হলো এক হাজার ৯৫ জনের। ২৪ ঘণ্টায় সুস্থ হয়েছেন ৫০২ জন। ফলে সুস্থ হয়ে বাড়ি ফিরেছেন মোট ১৭ হাজার ২৫০ জন।

বরাবরের মতোই করোনাভাইরাস থেকে সুরক্ষিত থাকতে সবাইকে সাবান দিয়ে হাত ধোয়া, মুখে মাস্ক পরাসহ স্বাস্থ্যবিধি মেনে চলার অনুরোধ জানান ডা. নাসিমা।

এদিকে আজ শুক্রবার বাংলাদেশ সময় সকাল পর্যন্ত বিশ্বখ্যাত জরিপ সংস্থা ওয়ার্ল্ডোমিটারের তথ্যানুযায়ী, বিশ্বব্যাপী ছড়িয়ে পড়া করোনার শিকার এখন পর্যন্ত ৭৫ লাখ ৮৩ হাজার ৯০৮ জন মানুষ। এর মধ্যে গত ২৪ ঘণ্টায় আক্রান্ত ১ লাখ ২০ হাজার ৯৫০ জন। নতুন করে প্রাণ কেড়েছে ৪ হাজার ৯৫১ জনের। এ নিয়ে করোনারাঘাতে না ফেরার দেশে বিশ্বের ৪ লাখ ২৩ হাজার ৮৬ জন মানুষ। আর সুস্থ হয়ে হাসপাতাল ছেড়েছেন ৩৮ লাখ ৪১ হাজারের বেশি মানুষ।

দক্ষিণ এশিয়ার দেশ পাকিস্তানেও হু হু করে বাড়ছে করোনা সংক্রমণ। যেখানে গত ২৪ ঘণ্টায় প্রায় হাজারের বেশি মানুষ সংক্রমিত হয়েছেন। এতে করে আক্রান্ত বেড়ে সোয়া ১ লাখ ছাড়িয়েছে। নতুন করে ১০৭ জনসহ প্রাণহানি ২ হাজার ৪৬৩ জনে ঠেকেছে।

এছাড়া পার্শ্ববর্তী দেশ ভারতে ভয়াবহ রূপ ধারণ করেছে করোনা। প্রতিদিনের ন্যায় আবারও সর্বোচ্চ আক্রান্ত নিয়ে সংক্রমণে যুক্তরাজ্যকে পেছনে ফেলে শীর্ষ চারে উঠেছে দেশটি। এতে করোনার ভুক্তভোগীর সংখ্যা বেড়ে ৩ লাখ ছুঁই ছুঁই।

ভারতের কেন্দ্রিয় স্বাস্থ্য মন্ত্রণালয়ের বরাত দিয়ে এনডিটিভি জানিয়েছে, দেশটিতে এখন পর্যন্ত করোনার শিকার ২ লাখ ৯৭ হাজার ৫৩৫ জনে পৌঁছেছে। এর মধ্যে গত ২৪ ঘণ্টায় আক্রান্ত ১০ হাজার ৯৫৬ জন। এখন পর্যন্ত একদিনে দশ হাজারের বেশি আক্রান্ত এটাই প্রথম। অন্যদিকে,  প্রাণ গেছে আরও ৩৯৬ জনের। যা একদিনে সর্বোচ্চ মৃত্যু। এতে করে করোনায় প্রানহানি ঘটল ৮ হাজার ৪৯৮ জনের। যদিও আক্রান্তদের অর্ধেকই সুস্থ বলে জানিয়েছে মন্ত্রণালয়।

প্রসঙ্গত, গত বছরের ১৭ ডিসেম্বর চীনের হুবেই প্রদেশের উহান থেকে উৎপত্তি হওয়া প্রাণঘাতী করোনাভাইরাস বাংলাদেশসহ বিশ্বের ২১৩টি দেশ ও অঞ্চলে ছড়িয়ে পড়েছে। দেশে প্রথম কোভিড-১৯ রোগী শনাক্ত হন ৮ মার্চ এবং এ রোগে আক্রান্ত প্রথম রোগীর মৃত্যু হয় ১৮ মার্চ। গত ১১ মার্চ করোনাভাইরাস সংকটকে মহামারী ঘোষণা করে বিশ্ব স্বাস্থ্য সংস্থা (ডব্লিউএইচও)।