অতিরিক্ত ভাড়া নিলে গণপরিবহনের নিবন্ধন-পারমিট বাতিল

প্রকাশিত: ২:১৪ অপরাহ্ণ , জুন ১০, ২০২০

করোনা ভাইরাস মহামারির মধ্যে এক চিঠির মাধ্যমে সড়ক পরিবহন ও সেতু মন্ত্রণালয় স্বাস্থ্যবিধি না মানলে এবং অতিরিক্ত ভাড়া আদায় করলে গণপরিবহনের নিবন্ধন ও রুট পারমিট বাতিলের নির্দেশ দিয়েছে।

বাংলাদেশ সড়ক পরিবহন কর্তৃপক্ষের (বিআরটিএ) চেয়ারম্যানকে চিঠির মাধ্যমে এই নির্দেশনা দিয়েছে সড়ক পরিবহন ও মহাসড়ক বিভাগ।

গণপরিবহনে স্বাস্থ্যবিধি লঙ্ঘন ও অতিরিক্ত ভাড়া আদায়ের বিষয়টি গত কয়েকদিনে সংবাদমাধ্যমে আসার বিষয়টি তুলে ধরে চিঠিতে বলা হয়, ‘এটা সরকারি নির্দেশনা ও সড়ক পরিবহন আইনের সুস্পষ্ট লঙ্ঘন এবং শাস্তিযোগ্য অপরাধ।’

যেসব গণপরিবহন স্বাস্থ্যবিধি লঙ্ঘন ও অতিরিক্ত ভাড়া আদায় করছে, তাদের বিরুদ্ধে ভ্রাম্যমাণ আদালত পরিচালনার পাশাপাশি ২০১৮ সালের ‘সড়ক পরিবহন আইন, এর সংশ্লিষ্ট ধারা/প্রচলিত বিধি-বিধান অনুযায়ী রেজিস্ট্রেশন ও রুট পারমিট বাতিল করে সড়ক পরিবহন ও মহাসড়ক বিভাগে জানাতে বলা হয়েছে বিআরটিএ চেয়ারম্যানকে।

মহামারির মধ্যে স্বাস্থ্যবিধি মানাসহ অর্ধেক যাত্রী পরিবহনের শর্তে গণপরিবহন চালানোর অনুমতি দিয়েছিল সরকার। সেজন্য মালিকদের ক্ষতি পোষাতে ৬০ শতাংশ ভাড়া বাড়ানো হলেও অতিরিক্ত ভাড়া আদায়ের অভিযোগ পাওয়া যাচ্ছে।