টিকা কেলেঙ্কারি, আর্জেন্টিনার স্বাস্থ্যমন্ত্রীর পদত্যাগ

প্রকাশিত: ২:০৬ অপরাহ্ণ , ফেব্রুয়ারি ২০, ২০২১

এখনই টিকা পাওয়ার উপযুক্ত নন কিন্তু দেশের ‘গুরুত্বপূর্ণ ব্যক্তিদের’ (ভিআইপি) মাধ্যমে অনেকে টিকা নিচ্ছেন; সম্প্রতি সংবাদমাধ্যমগুলোতে এ সংক্রান্ত প্রতিবেদন প্রকাশিত হওয়ার পর টিকা সরবরাহে অনিয়মের অভিযোগ ওঠায় পদত্যাগ করেছেন আর্জেন্টিনার স্বাস্থ্যমন্ত্রী।

টুইটার বিবৃতিতে পদত্যাগের কথা জানিয়ে আর্জেন্টিনার স্বাস্থ্যমন্ত্রী ‍গিনেস গার্সিয়া অবশ্য দাবি করেছেন, তার অনুপস্থিতির ফলে ‘অনিচ্ছাকৃত বিভ্রান্তি’ দেখা দেওয়ার কারণে যথাযথভাবে টিকার বণ্টন হয়নি। ফলে অনেকেই নির্দিষ্ট প্রক্রিয়ার বাইরে গিয়ে টিকা নিয়েছেন।

স্থানীয় সময় শুক্রবার আর্জেন্টিনার প্রেসিডেন্টের কার্যালয়ের দুটি সূত্র জানায়, যথাযথ প্রক্রিয়া ছাড়া অন্তত ১০ জনের টিকা নেওয়ার কথা জানার পর প্রেসিডেন্ট আলবার্তো ফার্নান্দেজ স্বাস্থ্যমন্ত্রী গিনেস গার্সিয়াকে পদত্যাগ করার আহ্বান জানান।

যথাযথ প্রক্রিয়ার বাইরে গিয়ে টিকা নেওয়া ব্যক্তিদের মধ্যে এক প্রবীণ সাংবাদিক আছেন। ওই সাংবাদিক দাবি করেছেন, সরাসরি মন্ত্রীর সঙ্গে কথা বলার পর তিনি টিকা নিতে পেরেছেন।

লাতিন আমেরিকায় টিকা সরবরাহের ঘাটতির মধ্যে টিকা বণ্টন নিয়ে একের পর এক অনিয়মের ঘটনা প্রকাশ্যে আসছে। টিকা বণ্টন নিয়ে অনিয়মের কারণে চলতি মাসের শুরুতে পেরুর স্বাস্থ্যমন্ত্রী এবং পররাষ্ট্রমন্ত্রী পদত্যাগ করেন। এ ছাড়া দেশটির সাবেক প্রেসিডেন্টের বিরুদ্ধে ফৌজদারি তদন্ত শুরু হয়েছে।

এখানেই শেষ নয়। করোনা টিকার ক্লিনিক্যাল ট্রায়াল ও দেশে টিকাদান কর্মসূচি শুরু হওয়ার আগেই পেরুর শত শত সরকারি কর্মকর্তা ও কর্মচারি করোনার টিকা নিয়েছেন বলে খবর বেরোনোর পর দেশব্যাপী ব্যাপক সমালোচনা শুরু হয়।