নোয়াখালীতে তারেক রহমানের বিরুদ্ধে মিথ্যা মামলার প্রতিবাদে মিছিল সমাবেশে পুলিশের লাঠিচার্জ সহ গ্রেফতার-১

প্রকাশিত: ৬:০২ অপরাহ্ণ , জানুয়ারি ৯, ২০২১

বিএনপির ভারপ্রাপ্ত চেয়ারম্যান তারেক রহমানের বিরুদ্ধে রাষ্ট্রদ্রোহ মামলায় গ্রেফতারি পরোয়ানা ও চার্জ গঠনের নির্দেশের প্রতিবাদে ও মামলা প্রত্যাহারের দাবিতে স্বেচ্ছাসেবক দল, যুবদল ও ছাত্রদলের উদ্যোগে আয়োজিত বিক্ষোভ মিছিলে পুলিশের লাঠিচার্জের অভিযোগ উঠেছে।

লাঠিচার্জের বিষয়ে পুলিশের কাছে জানতে চাইলে পুলিশ অস্বীকার করে বলেন,মিছিলে ধাওয়া করা হয়,তবে লাঠিচার্জ করা হয়নি।

জেলা বিএনপির এক সংবাদ বিজ্ঞপ্তিতে নেতারা দাবি করেছেন,সুধারাম মডেল থানা পুলিশের লাঠিচার্জে তাদের অনন্ত  ১০ জন নেতা কর্মী আহত ও  একজনকে গ্রেফতার করা হয়েছে।

জানা গেছে,শনিবার সকাল ১০টায় নোয়াখালী প্রেসক্লাবের সামনে থেকে স্বেচ্ছাসেবক দল, যুবদল ও ছাত্রদলের যৌথ উদ্যোগে একটি বিক্ষোভ মিছিল বের হয়ে মিছিলটি পৌর বাজারের সামনে পৌঁছলে পুলিশ মিছিলের পেছন দিক থেকে লাঠিচার্জ শুরু করে।

তখন ছাত্রদলের হারুন ভূঁইয়া শাহাদাত, যুবদলের সোহাগ, মনিরসহ ১০ জন আহত হন।

আহতদের উদ্ধার করে স্থানীয় ভাবে  চিকিৎসা দেওয়া হচ্ছে।

এ সময় পুলিশ বিক্ষোভ মিছিল থেকে জেলা স্বেচ্ছাসেবক দলের সাধারণ সম্পাদক মিজানুর রহমান মিজানকে গ্রেফতার করেছে।

 

এ ঘটনার প্রতিবাদে স্বেচ্ছাসেবক দল, যুবদল ও ছাত্রদল নোয়াখালীর প্রতিটি উপজেলার সোমবার বিক্ষোভ মিছিলের কর্মসূচি ঘোষণা করা হয়েছ বলে জানা গেছে।

এ ঘটনায় তীব্র নিন্দা জানিয়ে বিবৃতি দিয়েছেন নোয়াখালী জেলা যুবদলের সভাপতি মঞ্জুরুল আজিম সুমন, সাধারণ সম্পাদক নুরুল আমিন খান, স্বেচ্ছাসেবক দলের সভাপতি সাবের আহমেদ, সিনিয়র সহ-সভাপতি মো. জাহাঙ্গীর আলম কালা,জেলা বিএনপির সাবেক নেতা ভিপি আলাউদ্দিন প্রমুখ।

এ বিষয়ে সুধারাম থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা(ওসি) মো. সাহেদ উদ্দিন বলেন,জেলা বিএনপি মিছিল সমাবেশের কোন অনুমতি নেয়নি।তবে মিছিল থেকে মিজান নামে একজনকে গ্রেফতার করা হয়েছে।