নোয়াখালীতে অটোরিকশা চালক হত্যার মামলার রহস্য উদঘাটন

প্রকাশিত: ১২:৪৪ পূর্বাহ্ণ , ডিসেম্বর ৩১, ২০২০
নোয়াখালী চাটখিল উপজেলার রামনারায়নপুর ইউনিয়নের ধর্মপুর গ্রামের গনি বাড়ি নামক স্থানে সুপারি গাছের সাথে ফাঁস লাগানো অবস্থায় নুরুল আমিন (৩২)নামে এক অটোরিকশা চালকের লাশ উদ্ধার করেছে চাটখিল থানা পুলিশ।
এ ঘটনাটি ঘটেছে গত ২৪ শে ডিসেম্বর  অনুমানিক রাত ৮ টা ৩০ মিনিটে।
এ  সময় পুলিশ  ঘটনা স্থল থেকে লাশ উদ্ধার করে ময়নাতদন্তের জন্য  নোয়াখালী জেনারেল হাসপাতালে মর্গে প্রেরন করেন এবং এ বিষয়ে একটি হত্যা মামলা রুজু করা হয়েছে।
পুলিশ জানান,নোয়াখালী পুলিশ সুপার মোঃ আলমগীর হোসেন এর নির্দেশনা অনুযায়ী শুরু হয় মামলার তদন্ত।
পরে  চাটখিল থানা পুলিশ  নিরলস ভাবে মাঠে তদন্ত চালিয়ে যায়।
তদন্ত কালে জানা গেছে,নিহত নুরুল অামিনকে হত্যা করে তার মৃত দেহ সুপারি গাছের সাথে ঝুলিয়ে অটোরিকশা ও মোবাইল নিয়ে পালিয়ে যায় হত্যাকারী।
 এক পর্যায়ে তথ্যপ্রযুক্তির ব্যবহারের মাধ্যমে গোপন তথ্য সংগ্রহ করে অটোরিকশা উদ্ধার করা হয়।তদন্তের ২ দিনের মধ্যে  চাটখিল থানার টিম  সনাক্ত করেন যে,এ মামলার হত্যাকরী পলায়ন আসামি নোয়াখালীর কবিরহাট থানার নলুয়া গ্রামে অবস্থান করছে।পরে পুলিশ সুপার মোঃ আলমগীর হোসেন এর নির্দেশনায়,গত ২৮ শে ডিসেম্বর
 চাটখিল থানা পুলিশ নলুয়া গ্রামে অভিযান চালিয়ে মাহবুব নামীয় হত্যাকারীকে মোবাইল ফোনসহ  রাতে কৌশলে তাকে গ্রেপ্তার করে।
পরবর্তীতে হত্যাকারীর দেয়া তথ্যমতে উদ্ধার করা হয় নিহত নুরুল অামিনের  অটোরিকশা এবং ২৯ শে ডিসেম্বর ভোরে ফেনী সাহদেবপুর এলাকায় হত্যাকারীর ভাড়া বাসা  থেকে উদ্ধার করা হয় নিহতের ব্যবহৃত মোবাইল সীম।পরে হত্যাকারী মাহবুব নিজেই অাজ বিজ্ঞ অাদালতে জবানবন্দীতে অটোরিকশা চালককে হত্যার ঘটনা  স্বীকার করেন।